Advertisement

শর্ট সার্কিট নাকি অন্তর্ঘাত? সল্টলেকের পুজো মণ্ডপের অগ্নিকাণ্ডের কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা

04:30 PM Oct 28, 2020 |
Advertisement
Advertisement

কলহার মুখোপাধ্যায়: বিসর্জনের আগেই আগুন গ্রাস করেছে সল্টলেকের (Salt Lake) এফডি ব্লকের প্রতিমা ও মণ্ডপ। কিন্তু কী থেকে আগুন? প্রাথমিকভাবে শর্ট সার্কিট বলে মনে করা হলেও তা মানতে নারাজ পুজো উদ্যোক্তারা। বরং গোটা ঘটনার পিছনে অন্তর্ঘাতকেই ইঙ্গিত করছেন তাঁরা। ইতিমধ্যেই অগ্নিকাণ্ডের কারণের সন্ধানে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা।

Advertisement

ঘটনার সূত্রপাত বুধবার ভোরে। আচমকাই ওই পুজো মণ্ডপ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেন সেখানে থাকা কয়েকজন যুবক। ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়তেই টের পান স্থানীয়রা। খবর যায় পুজো উদ্যোক্তাদের কাছে। ততক্ষণে দাউদাউ করে জ্বলতে শুরু করেছে মণ্ডপ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের ৩ টি ইঞ্চিন। তবে ততক্ষণে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে মণ্ডপ ও প্রতিমা। বিষয়টি জানা মাত্রই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। কথা বলেন পুজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা আসবেন বলেও সেইসময় জানান তিনি। প্রাথমিকভাবে আগুনের উৎসের সন্ধানে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ।

[আরও পড়ুন:পরিকাঠামোহীন হোম আইসোলেশনই রাজ্যে করোনায় মৃত্যু বাড়াচ্ছে! জরুরি বৈঠক স্বাস্থ্যসচিবের]

কী থেকে আগুন? পুজোর সম্পাদক সৌমিত্র মুখোপাধ্যায়ের কথায়, “আজ বিসর্জনের কথা ছিল বলে গতকাল রাতেই প্রায় সব আলো খুলে দেওয়া হয়েছিল। ফলে শর্ট সার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ড হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে কী থেকে এই আগুন তার সঠিক তদন্ত চাই।” একই কথা বলেছেন পুজোর প্রেসিডেন্ট বাণীব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, “কাল রাতেই সব আলো প্রায় খুলে ফেলা হয়েছিল। আর আগুন লেগেছে পুরোহিতের প্রবেশের জায়গায়। ওখানে শর্ট সার্কিটের কোনও সম্ভাবনা নেই। অন্তর্ঘাতের আশঙ্কা করছি আমরা।” এবিষয়ে সুজিত বসু বলেন, “তদন্ত শুরু হয়েছে। দ্রুতই গোটা বিষয়টি স্পষ্ট হবে।”

[আরও পড়ুন:তাড়াহুড়োয় সন্তানকে ট্যাক্সিতেই ফেলে গেলেন দম্পতি! পুলিশ ও চালকের উদ্যোগে উদ্ধার খুদে]

Advertisement
Next