শিবরাত্রিতে শুধু উপোস নয়, মনোস্কামনা পূরণ করতে মানতে হবে এই নিয়মগুলোও

10:35 PM Feb 25, 2022 |
Advertisement

কালীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়: আগামী পয়লা মার্চ অর্থাৎ মঙ্গলবার শিবরাত্রি (Shivratri 2022)। কথিত আছে, এই দিন যাঁরা উপোস করে থাকেন, তাঁদের গোটা বছর সুখ সমৃদ্ধিতে কাটে। কিন্তু অনেকেই জানেন না, শুধু উপোস করলেই কাঙ্ক্ষিত ফল মেলে না, আরও কিছু নিয়ম মানার প্রয়োজন হয়। জেনে নেওয়া যাক কী কী আচার পালন করলে মনোস্কামনা পূরণ হবে।

Advertisement

প্রথমত, সারাদিন উপোস করে থাকতে হবে। ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে গরম জল আর তিল দিয়ে স্নান করে নিজেকে শুদ্ধ করুন। পুজো শুরুর প্রথমে শিবলিঙ্গকে দুধ, জল এবং মধু দিয়ে স্নান করান। পুজোর জন্য বেলপাতা, আকন্দ ফুল, কুমকুম এবং চন্দন অত্যাবশ্যক।

[আরও পড়ুন: অবিকল মা ভবতারিণীর মূর্তির মতোই আরও দুই মূর্তি আছে বাংলায়, কোথায় জানেন?]

বলা হয়, শিবকে দুধ কিংবা ক্ষীরই অর্পণ করা উচিত। তবে ভাঙ দিলেও শিব খুশি হন। পুজোর সময় পূজারীকে ‘ঔঁ নমঃ শিবায়ঃ’ মন্ত্রটি জপ করতে হবে। শিবরাত্রির দিন সকাল থেকে উপোস শুরু হয় এবং উপবাস শেষ হয় পরের দিন সকালে। যিনি উপোস করছেন, তিনি দুধ, ফল ইত্যাদি খেতে পারেন। তবে সূর্যাস্তের পরে কোনও কিছু খাওয়া চলবে না। সারা রাত জেগে থাকতে হবে এবং ভক্তিগীতি গাইতে হবে। পরের দিন ভোরবেলা উপোস ভাঙতে হবে পুজোর প্রসাদ খেয়ে।

Advertising
Advertising

শিবের তিলক তৈরিরও বিশেষ রয়েছে। তিলকটি তৈরি করতে হবে দুধ, গোলাপ জল, চন্দন, দই, মধু, ঘি, চিনি, এবং জল দিয়ে। কথিত রয়েছে, শিবরাত্রির দিন গঙ্গায় ডুব দিলে সমস্ত পাপ ধুয়ে যায়।
চার প্রহর ধরে শিব লিঙ্গের পুজো হয়। প্রথম প্রহরে জল দিয়ে, দ্বিতীয় প্রহরে দই দিয়ে, তৃতীয় প্রহরে ঘি এবং চতুর্থ প্রহরে মধু দিয়ে শিব লিঙ্গের অভিষেক করতে হয়। পুজো শেষের পরে আরতির সময়ে শিবের একশো আটটি নাম জপ করতে হবে।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে ফের দর্শনার্থীদের জন্য খুলছে বেলুড় মঠ, জেনে নিন দিনক্ষণ]

Advertisement
Next