Advertisement

কৌশিকী অমাবস্যার জন্য আগামী মাসের ছ’দিন বন্ধ থাকবে তারাপীঠ মন্দিরের দরজা

08:46 PM Aug 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: করোনা অতিমারীর (Corona Pandemic) কারণে এবারও কৌশিকী অমাবস্যায় (Kaushiki Amavasya 2021) ভক্তদের জন্য ছ’দিন বন্ধ থাকবে তারাপীঠ মন্দিরের (Tarapith Temple) দরজা। মঙ্গলবার দুপুরে রামপুরহাট মহকুমা শাসকের সভাকক্ষে জেলা প্রশাসন ও মন্দির কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি স্পিকার তথা তারাপীঠ রামপুরহাট উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, জেলা সভাধিপতি তথা সিউড়ির বিধায়ক বিকাশ রায়চৌধুরী, জেলাশাসক বিধান রায়, বোলপুর সাংসদ অসিত মাল, পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠি, লাভপুর বিধায়ক অভিজিৎ সিংহ।

Advertisement

কথিত আছে মহিষাসুর বধের পর শুম্ভ-নিশুম্ভের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিলেন স্বর্গের দেবতারা। শেষে দেবতারা মহামায়ার তপস্যা শুরু করেন। সেই তপস্যায় সন্তুষ্ট হয়ে দেবী নিজের কোষ থেকে উজ্জ্বল জ্যোতি অনুরঞ্জিত করে এক পরমাসুন্দরী দেবী মূর্তিতে আবির্ভূত হন। নিজ কোষ শরীর থেকে বের হওয়ার জন্য তাঁর নাম হয় কৌশিকী। কৌশিকীদেবী আবার তারা ও কালীতে রূপান্তরিত হন। আবার শোনা যায়, কৌশিকী অমাবস্যার দিন তারাপীঠ মহাশ্মশানের শ্বেতশিমূল বৃক্ষের তলায় সাধক বামাক্ষ্যাপা (Bamakhepa) সাধনা করে সিদ্ধিলাভ করেছিলেন। ফলে ওই দিন মা তারার পুজো দিলে এবং দ্বারকা নদীতে স্নান করলে পুণ্যলাভ হয় এবং কুম্ভস্নান করা হয়।

[আরও পড়ুন: COVID-19: রাজ্যে করোনায় মৃত্যুহার নিম্নমুখী, চিন্তা বাড়াল দার্জিলিংয়ের সংক্রমণ]

এমনই বিশ্বাসে আজও দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ ওই তিথিতে তারাপীঠে ছুটে আসেন। চলতি বছরে ৭ সেপ্টেম্বর কৌশিকী অমাবস্যা। তারাপীঠ ভক্তশূন্য রাখতে তাই আগামী ৩ থেকে ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মন্দিরের দরজা বন্ধ থাকবে। তবে নিত্য পুজো কিংবা অমাবস্যার পুজো হবে রীতি মেনেই।

মন্দির সেবাইত কমিটির সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায় বলেন, “কৌশিকী অমাবস্যায় লক্ষ লক্ষ মানুষের জমায়েত হয়। ফলে এই অতিমারীর সময় কৌশিকী অমাবস্যায় মন্দির খোলা থাকলে গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা রয়েছে। সেই কারণে মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে রীতি মেনে মায়ের পুজো হবে।” জেলা শাসক বিধান রায় বলেন,“অনেক আগেই মন্দির বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। কারণ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই খবরটি পৌঁছান দরকার। যাতে মানুষকে হয়রানি হতে না হয়।”

[আরও পড়ুন: পারিবারিক বিবাদ থেকে নৃশংস খুন! শ্বশুর, শ্যালিকাকে কুপিয়ে হত্যাকাণ্ডে ধৃত জামাই]

Advertisement
Next