দূর হবে দুঃখ-দুর্দশা, জেনে নিন গণেশ পুজোয় সিঁদুরের গুরুত্ব কতখানি

08:29 PM Aug 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিন্দু শাস্ত্রে তেত্রিশ কোটি দেবতাদের মধ্যে সর্বাগ্রে পূজিত হন গণেশ (Ganesh Puja)। তিনিই পরিচিত বিঘ্নহর্তা নামে। অর্থাৎ সমস্ত বাধা-বিঘ্ন, সমস্যা, দূর করতে সিদ্ধিদাতার পুজো করে থাকেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। তাই তো বিয়ের কার্ডেও গণেশের উপস্থিতিকে শুভ বলেই বিশ্বাস করা হয়। তবে জানেন কি, এই পুজোয় সিঁদুরের গুরুত্ব ঠিক কতখানি? কোন কোন জিনিস দিয়ে পুজো করলে তুষ্ট হন বিনায়ক?

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

জবা ফুল এবং দূর্বা যেমন গণেশ পুজোতে ব্যবহৃত হয়, তেমনই সিদ্ধিদাতার পুজোয় লাগে মোদক। মনে করা হয়, এটিই তাঁর সবচেয়ে প্রিয় খাবার। গণেশের আরেকটি পছন্দের জিনিস হল সিঁদুর (Sindur)। হ্যাঁ, বজরংবলির মতো গণেশও সিঁদুর পছন্দ করেন। সপ্তাহের প্রতি বুধবার গণেশ পুজোয় সিঁদুর ব্যবহার করলে সব দুঃখ, দুর্দশা থেকে নিজেকে দূরে রাখা সম্ভব। হিন্দু শাস্ত্র মতে গণেশকে সিঁদুর দানের আদর্শ সময় হল ফাল্গুন মাস। হোলির পরের দিন গণেশ পুজোর সরঞ্জামে অবশ্যই সিঁদুর রাখুন। এতে যাবতীয় শারীরিক সমস্যা দূর হয়। তবে যেমন-তেমনভাবে নয়, নির্দিষ্ট আচার-নিয়ম মেনেই সিঁদুর প্রদান করা উচিত।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ‘কেষ্টর মতো ছেলে হয় না’, টিএমসিপির সভায় মমতার মুখে পার্থরও নাম]

স্নান করে হলুদ রঙের পোশাক পরিধান করুন। সামান্য তেল নিয়ে তাতে সিঁদুর মিশিয়ে রুপো বা সোনার কয়েনে তা লাগান। যে কোনও দিনই এভাবে পুজো করতে পারেন। এরপর মন্ত্র উচ্চারণ করে সিঁদুর ও দোলের রং দিন গণেশকে। ‘সিন্দুর শোভনং রক্তং সৌভাগ্য সুখবর্ধনম। শুভদং কামদং চেব সিন্দুরং প্রতিগৃহাতম।’ এই মন্ত্রেই প্রসন্ন হন গণেশ। মনের মধ্যে বিশ্বাস আর ভক্তি রেখে এই রীতি মেনে পুজো করলে সংসারে সুখ-শান্তি বজায় থাকে। দূর হয় নানা ছোটখাটো দৈনন্দিন সমস্যা।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

সিঁদুর ছাড়াও গণপতিকে তুষ্ট করতে পুজোয় ব্যবহার করতে পারেন ধুতুরা ফুল, শঙ্খ, কলা ও দূর্বা। তবে বাড়ির কোন অংশে গণেশ অধিষ্ঠিত, তাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। সংসারে আর্থিক ও মানসিক শান্তি বজায় রাখতে গণেশের মূর্তি রাখুন উত্তর দিকে। যদি সেদিকে রাখা সম্ভব না হয়, সেক্ষেত্রে মাথায় রাখুন গণেশ পুজোর সময় আপনার মুখ উত্তর বা পূর্ব দিকে যেন থাকে।

[আরও পড়ুন: খিদিরপুরে দুর্ঘটনায় সন্তানহারা মেয়র পারিষদের বাড়িতে মুখ্যমন্ত্রী, দিলেন পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস]

একনজরে দেখে নেওয়া যাক এবারের গণেশ চতুর্থীর (Ganesh Chaturthi 2022) দিনক্ষণ:
গণেশ চতুর্থী: ৩১ আগস্ট, ২০২২ (বুধবার)
মধ্যাহ্ন গণেশ পুজোর তিথি: সকাল ১১:০৪টা থেকে বেলা ১:৩৯টা
তিথির সময়: ২ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট
চতুর্থী তিথি শুরু: ৩০ আগস্ট বেলা ৩:৩৩ টায়
চতুর্থী তিথি শেষ: ৩১ আগস্ট বেলা ৩:২২ টায়
গণেশ বিসর্জন: ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
কলকাতায় গণেশ চতুর্থীর তিথি: ৩১ আগস্ট সকাল ১০:২১ থেকে বেলা ১২:৫২ মিনিট

Advertisement
Next