Advertisement

বালকের হাতে ধরা দৈত্যাকার ব্যাঙ! ছবি দেখে বিস্মিত নেটদুনিয়া

05:06 PM May 12, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রকৃতির ভাণ্ডারে কত যে রহস্য লুকিয়ে থাকে! একথাটা মনে পড়বেই ভাইরাল হওয়া ছবিটার দিকে তাকালে। ওশেনিয়ার সলোমন দ্বীপপুঞ্জের (Solomon Islands) এক বালকের হাতে ধরা ব্যাঙটি সত্যিই যেন বিস্ময়ের খনি! প্রায় এক মানবশিশুর মতোই আকারে বিরাট সেটি! যাকে দেখে মুগ্ধ নেট দুনিয়া। স্বাভাবিক ভাবেই মনে পড়ে যেতে বাধ্য রূপকথায় পড়া ব্যাঙ রাজপুত্রের গল্প। জিমি হুগো নামের এক স্থানীয় কাঠের মিলের মালিক তুলেছেন এই ছবি। তবে তিনি অবাক। ভাবতেই পারেননি এত মানুষের সাড়া পাবেন।

Advertisement

আপাতত এই দৈত্যাকার ব্যাঙের (Giant frog) ছবি ভাইরাল। বহু নেটিজেনই শেয়ার করছেন‌ ছবিটি।
তবে এই ব্যাঙের প্রকাণ্ড আকার যতই অবাক করুক, এই আকারের ব্যাঙ মোটেই কোনও ব্যতিক্রম নয়। সলোমন দ্বীপপুঞ্জ ও পাপুয়া নিউ গিনিতে আকছাড় দেখা মেলে এই ব্যাঙগুলির। এর স্থানীয় নাম ‘বুশ চিকেন’। নাম থেকেই পরিষ্কার, মুরগির মাংসের মতোই কিংবা কারও মতে তার চেয়েও সুস্বাদু এই ব্যাঙের মাংস। ফলে চাহিদাও প্রচুর। যার দৌলতে এই ব্যাঙ ক্রমেই অবলুপ্তির পথে হাঁটছে। সঙ্গে রয়েছে দূষণের কাঁটা। দুইয়ে মিলে ধীরে ধীরে বিপন্ন হয়ে উঠছে তারা।

[আরও পড়ুন: অবশেষে স্বস্তি! জনবসতি এড়িয়ে ভারত মহাসাগরে ভেঙে পড়ল চিনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ]

তবে এই ব্যাঙটির আকার চমকে দিচ্ছে বিশেষজ্ঞদেরও। তাঁদের মতে, এই ‘কর্নাফের গুপ্পি’ ব্যাঙ এত বড় চেহারায় পৌঁছতে পারে না। তার আগেই তাকে ধরে ফেলে খাদ্যে রূপান্তরিত করে স্থানীয়রা। ফলে এটা পরিষ্কার, এই ব্যাঙটি বেশ বয়স্ক। জোডি রোলি নামে অস্ট্রেলিয়ার এক জাদুঘরের কিউরেটরের মতে, ‘‘আমি কখনও এত বড় ব্যাঙ দেখিনি। এই ধরনের ব্যাঙের এতটা বড় হওয়া একটু অস্বাভাবিক। সুতরাং এটা বোঝাই যাচ্ছে, এই ব্যাঙটার বেশ বয়স হয়েছে।’’

[আরও পড়ুন: ‘হাওয়া বয় শনশন’! মঙ্গলে বায়ুপ্রবাহের শব্দ রেকর্ড করে পাঠাল নাসার বিশেষ যান]

Advertisement
Next