Advertisement

হলদিয়ামুখী জাহাজের জ্বালানি ট্যাংকে ফুটো, বঙ্গোপসাগরে ছড়াচ্ছে তেল, উদ্বিগ্ন পরিবেশবিদরা

02:23 PM Jun 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: হলদিয়া বন্দরমুখী (Haldia Port) জাহাজে বিপত্তি। বন্দর সূত্রে জানা গিয়েছে, এমভি ডেভন নামে একটি কন্টেনারবাহী পর্তুগিজ (Portugal) জাহাজের বন্দরে আসার সময় মাঝসমুদ্রে জ্বালানি তেলের ট্যাংক ফুটো হয়ে গিয়েছে। আর এর ফলেই তৈরি হয়েছে বিপদের আশঙ্কা। হলদিয়া (Haldia) থেকে প্রায় সাড়ে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে সেটি। ওই জাহাজের ট্যাঙ্ক ফেটে ১০ কেএল অর্থাৎ ১০ হাজার লিটার তেল বঙ্গোপসাগরে ছড়িয়ে পড়ায় বড়সড় সমস্যা দেখা দিয়েছে। চিন্তায় রয়েছেন মৎস্যজীবীরা। পরিবেশবিদরাও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

Advertisement

শনিবার সন্ধ্যায় জাহাজটির হলদিয়া বন্দরে পৌঁছনোর কথা ছিল। কিন্তু দুর্ঘটনাটি ঘটায় আপাতত ২০ জুন সেটি হলদিয়ায় পৌঁছবে বলে খবর। আপাতত চেন্নাই কোস্টগার্ড নিজেদের হেফাজতে নিয়ে তা মেরামতের কাজে হাত লাগিয়েছে। ফলে আতঙ্কের কিছু নেই। ১৭ জন ক্রু এই জাহাজে আছেন বলে জানা গিয়েছে। বন্দরের জেনারেল ম্যানেজার (ট্রাফিক) অভয় মহাপাত্র জানান, “জাহাজটির শনিবার রাতে হলদিয়া ডকে ঢোকার কথা ছিল। তার আগে জাহাজটিকে স্যান্ডহেডে পৌঁছলে রিপোর্টিং করতে হবে নিয়ম মেনে। ওই জাহাজ অয়েল স্পিল আটকাতে পারলে তবে বন্দরে ঢোকার ছাড়পত্র পাবে। বিপদগ্রস্ত জাহাজের ক্যাপ্টেন কোস্টগার্ডকে বিষয়টি জানিয়েছিল।”

[আরও পড়ুন: মহাকাশে ধুন্ধুমার! মার্কিনদের টেক্কা দিয়ে চাঁদে মানুষ পাঠাতে পারে চিন, আশঙ্কা NASA’র]

জানা গিয়েছে, জাহাজের ট্যাঙ্কে থাকা ১২০ কেএল অর্থাৎ ১ লক্ষ ২০ হাজার লিটার লো-সালফার জ্বালানি তেল ছিল। তার থেকে ১০ হাজার লিটার সমুদ্রে মিশেছে। ইলিশের মরশুমে ওই তেল সমুদ্রে মেশায় চিন্তায় মৎস্যজীবীরা। কারণ এই সময় ঝাঁক বেঁধে ইলিশ সুন্দরবনের মোহানার দিকে আসে ডিম পাড়তে। মাছ ধরতে গিয়েছেন মৎস্যজীবীরাও। এই অবস্থায় ৩৮২টি কন্টেনারে প্রায় ১১ হাজার টন পণ্য নিয়ে আসা জাহাজের তেল ছড়িয়ে পড়ায় মৎস্যজীবীরাও উদ্বিগ্ন।

 

[আরও পড়ুন: অসম থেকে বাংলায় আসছে ২০টি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, বিনিময়ে রাজ্য দেবে বাইসন, গণ্ডার, হাতি]

Advertisement
Next