Advertisement

চলতি আইপিএলে বেটিং করে পুলিশের হাতে আটক প্রাক্তন রনজি ক্রিকেটার

09:00 PM Nov 09, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একেবারে শেষ পর্বে IPL। বাকি কেবল ফাইনাল। মুখোমুখি মুম্বই (Mumbai Indians) ও দিল্লি (Delhi Capitals)। আর হাইভোল্টেজ এই ম্যাচের আগেই মুম্বই থেকে বেটিংচক্রের সঙ্গে যুক্ত এক ক্রিকেটারকে আটক করল মুম্বই পুলিশ। ‌জানা গিয়েছে, ওই ক্রিকেটারের নাম রবিন মরিস। এছাড়া গ্রেপ্তার করা হয়েছে আরও দু’‌জনকে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

জানা গিয়েছে, ৪৪ বছর বয়সি মরিসের জন্ম কানাডায় (Canada) হলেও ছোট থেকেই ভারতেই থাকতেন। ওড়িশা (Odisha) এবং মুম্বইয়ের (Mumbai) রনজি ট্রফির (Ranji Trophy) ম্যাচও খেলেছেন। ৪২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন তিনি। তবে ক্রিকেট ছাড়ার পরই যুক্ত হন বিভিন্ন অসামাজিক কাজে। এহেন মরিসের ফ্ল্যাটেই বসত বেটিংয়ের আসর। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালায় ভারসোভা (Varsova) থানার পুলিশ। হাতেনাতে ধরা করা হয় মরিসকে। সেই সঙ্গে গ্রেপ্তার করা হয় ধীরেন্দ্র কুলকার্নি এবং রোহিত ভিমান্না নামে আরও দুই ব্যক্তিকে। ওই ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় একাধিক ল্যাপটপ এবং ফোন। তিনজনের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস (Rajasthan Royals) বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (Sunrisers Hyderabad) ম্যাচ নিয়ে মিটিং করার কথা স্বীকারও করে নেন তিন অভিযুক্ত।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: জল্পনার অবসান, জাতীয় দলে ফিরলেন রোহিত, অস্ট্রেলিয়ায় একটিমাত্র টেস্ট খেলবেন কোহলি]

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও বেটিং চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল মরিসের বিরুদ্ধে। এছাড়া এর আগে ২০১৯ সালে এক লোন এজেন্টকে অপহরণ করায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল মরিস–সহ চারজন ব্যক্তিকে। জানা গিয়েছিল, মরিস ওই এজেন্টের মাধ্যমে পার্সোনাল লোনের জন্য আবেদন জানিয়েছিল। কিন্তু দু’‌লক্ষ টাকা প্রসেসিং ফি নিলেও লোন করিয়ে দিতে পারেনি ওই এজেন্ট। সেই টাকা উদ্ধারের জন্যই ওই ব্যক্তিকে অপহরণ করে মরিস ও তাঁর সাঙ্গপাঙ্গরা।‌

[আরও পড়ুন: সব বিষয়ে ‘মাথা গলাচ্ছেন’ সৌরভ, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট তীব্র কটাক্ষ বেঙ্কসরকারের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next