Advertisement

করোনা আক্রান্ত শচীনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে চূড়ান্ত ট্রোলড শোয়েব আখতার

02:14 PM Mar 31, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আক্রান্ত শচীন তেণ্ডুলকর (Sachin Tendulkar)। তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করছে গোটা দেশ। ‘মাস্টার ব্লাস্টার’-এর জন্য শুভ কামনা করে টুইট করেছেন বিশ্বের বর্তমান ও প্রাক্তন ক্রিকেটাররাও। একইভাবে শচীনের জন্য টুইট করেছেন শোয়েব আখতারও। কিন্তু ফল হল উলটো। সোশ্যাল মিডিয়ায় চূড়ান্ত ট্রোলের শিকার হতে হল প্রাক্তন পাক পেসারকে!

Advertisement

কিন্তু শচীনের আরোগ্য কামনা করে কী এমন লিখলেন আখতার (Shoaib Akhtar), যার জন্য তাঁকে নিয়ে মশকরা শুরু করলেন নেটিজেনরা! আসলে টুইটারে শোয়েব লিখেছেন, “আমার কেরিয়ারের অন্যতম সেরা প্রতিপক্ষ। তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন বন্ধু।” আর এতেই আপত্তি শচীনভক্তদের। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, ‘শচীন আপনাকে কখনওই অন্যতম সেরা প্রতিপক্ষ বলে মনে করেননি। বিশ্বের বহু তাবড় তাবড় বোলার মাস্টার ব্লাস্টারের প্রতিপক্ষ।’ গ্লেন ম্যাকগ্রা, ওয়াসিম আক্রম, ডেল স্টেইন, কার্টলি অ্যামব্রোস, অ্যালান ডোনাল্ড, চামিন্ডা ভ্যাসের মতো কিংবদন্তি বোলারদের নাম উল্লেখ করে শোয়েবকে কোণঠাসা করতে চেয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। কেউ কেউ আবার পরিষ্কার করে দিয়েছেন, পাক তারকাদের মধ্যে ওয়াকার ইউনিস কিংবা আক্রমই ‘মাস্টার ব্লাস্টার’-এর কঠিন প্রতিপক্ষ ছিলেন। শোয়েব নন।

[আরও পড়ুন: আইপিএলে নেই শ্রেয়স, পন্থকেই অধিনায়ক হিসেবে বেছে নিল দিল্লি ক্যাপিটালস]

২০০৩ বিশ্বকাপে ‘রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস’-এর ডেলিভারিতে ক্রিকেট ঈশ্বরের ওভার বাউন্ডারি মারার দৃশ্য আজও ক্রিকেটপ্রেমীদের চোখের সামনে ভাসে। একইসঙ্গে স্মৃতিতে রয়েছে ইডেনে শচীনকে শূন্য রানে ফিরিয়ে আখতারের সেলিব্রেশনের দৃশ্যও। ‘৯০-এর দশকের শেষ থেকে একবিংশ শতকের শুরুর বছরগুলোয় শচীন-শোয়েব ডুয়েল দারুণ উপভোগ করতেন দর্শকরা। প্রতিপক্ষের প্রসঙ্গ উঠলে শচীনের মুখেও শোনা যায় শোয়েবের কথা। তবে শচীনের ক্যারিশ্মার সামনে সমর্থকরা শোয়েবের প্রশংসা করতে নারাজ। আর সেই কারণেই মাস্টার ব্লাস্টারের আরোগ্য কামনা করেও কটাক্ষের শিকার হলেন তিনি।

উল্লেখ্য, লেজেন্ডদের টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার পরই শচীন জানিয়েছিলেন তিনি করোনায় আক্রান্ত। রোড সেফটি টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া দুই ভাই ইউসুফ ও ইরফান পাঠানও কোভিড পজিটিভ।

[আরও পড়ুন: নিলামে উঠল রোনাল্ডোর ছুঁড়ে ফেলা আর্মব্যান্ডটি, জানেন কেন?]

Advertisement
Next