Advertisement

শচীনের হাসপাতালে ভরতি হওয়া উচিত হয়নি, বিতর্কিত মন্তব্য মহারাষ্ট্রের মন্ত্রীর

04:42 PM Apr 15, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকদিন আগেই মারণ করোনা ভাইরাসে (Corona Pandemic) আক্রান্ত হয়েছিলেন কিংবদন্তি প্রাক্তন ক্রিকেটার শচীন তেণ্ডুলকর (Sachin Tendulkar)। সাবধানতা অবলম্বন করে চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে বেশ কিছুদিন হাসপাতালেও ভরতি ছিলেন তিনি। কিন্তু করোনায় আক্রান্ত হয়ে শচীনের হাসপাতালে ভরতি থাকার প্রসঙ্গেই এবার বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) বস্ত্রমন্ত্রী আসলাম শেখ। তাঁর মতে, শচীন-অক্ষয়ের মতো তারকাদের বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে থাকা উচিত ছিল। হাসপাতালে ভরতি হওয়ার প্রয়োজন ছিল না। আর তাঁর এই মন্তব্যের পরই তীব্র বিতর্কের ঝড় উঠেছে।

Advertisement

রায়পুরে ওয়ার্ল্ড রোড সেফটি সিরিজ শেষ হওয়ার পর গত ২৭ মার্চ করোনা (Covid-19) আক্রান্ত হয়েছিলেন শচীন। প্রথমে হোম আইসোলেশনেই ছিলেন তিনি। কিন্তু তারপরই সতর্কতার জন্য চিকিৎসকদের পরামর্শে হাসপাতালে ভরতি হন শচীন। এরপর ছোটবেলার বন্ধু অতুল রানাডে জানিয়েছিলেন, শচীনের শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে ভক্তদের চিন্তার কোনও কারণ নেই। আরও ভাল চিকিৎসার জন্যই তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। শচীনের শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল এবং তাই এই সিদ্ধান্ত। গোটা দেশ এমনকী বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ক্রিকেটপ্রেমী থেকে শুরু করে প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা এই সময় শচীনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছিলেন। কিন্তু মাস্টার ব্লাস্টারের এই হাসপাতালে ভরতি হওয়া নিয়েই আপত্তি আসলাম শেখের।

[আরও পড়ুন: এবার কেকেআরেও ফিক্সিংয়ের ছায়া! ৮ বছরের জন্য নির্বাসিত নাইটদের প্রাক্তন বোলিং কোচ]

সংবাদসংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শেখ বলেন, “উপসর্গহীন তারকাদের বাড়িতেই চিকিৎসা করানো উচিত। এতে হাসপাতালে একটি বেড নষ্ট হত না। অক্ষয় কুমার, শচীন তেণ্ডুলকরের মতো তারকাদের হাসপাতালে ভরতি হওয়া উচিত নয়। যাঁদের প্রয়োজন, তাঁদের জন্যই হাসপাতালের বেড রাখা উচিত।” যদিও মহারাষ্ট্রের মন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরই তীব্র বিতর্ক দেখা দিয়েছে। মন্ত্রী হয়ে এহেন মন্তব্যের জন্য তীব্র সমালোচনাও শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

[আরও পড়ুন: ১,২৫৮ দিন পর সিংহাসনচ্যুত কোহলি, ওয়ানডে ব়্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে এই পাক ব্যাটসম্যান]

Advertisement
Next