Advertisement

ব্যাটে-বলে দুরন্ত চেন্নাই, রাজস্থানকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় জয় পেলেন ধোনিরা

11:21 PM Apr 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

চেন্নাই সুপার কিংস: ২০ ওভারে ১৮৮/৯ (ডু’প্লেসি ৩৩, রায়ডু ২৭, সাকারিয়া ৩/৩৬)
রাজস্থান রয়্যালস: ২০ ওভারে ১৪৩/৯ (বাটলার ৪৯, তেওটিয়া ২৪, মঈন ৩/৭)
চেন্নাই সুপার কিংস ৪৫ রানে জয়ী।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্যাটে-বলে দুরন্ত পারফরম্যান্স। আর তার জোরেই প্রীতির পাঞ্জাব কিংসের পর এবার রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে আইপিএলে নিজেদের দ্বিতীয় জয় পেয়ে গেল মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। হলুদ জার্সিধারীদের দেওয়া ১৮৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে ১৪৩ রানেই থেমে গেল রাজস্থানের ইনিংস। চেন্নাইয়ের অধিনায়ক হিসেবে নিজের ২০০ তম ম্যাচে শেষপর্যন্ত ৪৫ রানের ‘বিরাট’ জয় পেলেন ধোনি।

এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন। তবে টস করতে নেমেই অবশ্য অনন্য নজির গড়ে ফেলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni)। চেন্নাইয়ের অধিনায়ক হিসেবে এদিন ২০০ তম ম্যাচ খেলে ফেললেন মাহি। যদিও ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেই ভাল হয়নি চেন্নাইয়ের। মাত্র দশ রান করেই আউট হয়ে যান ঋতুরাজ গায়কোয়াড। এরপর দলের ৪৫ রানের মাথায় আউট হয়ে যান আরেক ওপেনার ডু’প্লেসিও। তিনি করেন মাত্র ১৭ বলে ৩৩ রান। মারেন ৪টি চার ও দুটি ছয়। এরপর মঈন আলি ২০ বলে ২৬ রান করেন। মঈন আউট হতেই ক্রিজে আসেন আম্বাতি রায়ডু। তিনি অবশ্য রায়নার সঙ্গে জুটি বেঁধে দলের রান দ্রুত গতিতেই এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। শেষপর্যন্ত ১৭ বলে ২৭ রান করে আউট হন রায়ডু। শেষদিকে ব্র্যাভোর ৮ বলে ২০ রানের ঝোড়ো ইনিংসের সৌজন্যে চেন্নাইয়ের স্কোর ১৮০ রানের গণ্ডি পার করে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: রশিদ-মুজিবদের সঙ্গে রোজা রাখলেন ওয়ার্নার-উইলিয়ামসনও, প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটদুনিয়া]

২০ ওভারে ১৮৯ রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালই হয়েছিল রাজস্থানের। কিন্তু তারপরই ধস নামে তাঁদের ইনিংসে। একদিক থেকে কেবল লড়াই করেন জোস বাটলার। কিন্তু অন্যদিকে কেউই তাঁকে যোগ্যসঙ্গত দিতে পারেননি। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন সঞ্জু স্যামসন (১), ডেভিড মিলার (২), ক্রিস মরিসরা (০)। তবে বাটলার ৩৫ বলে ৪৯ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। কিন্তু তিনিও আউট হয়ে যাওয়ায় রান তাড়া করতে গিয়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়ে রাজস্থান। শেষপর্যন্ত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৩ রানেই শেষ যায় তাঁদের ইনিংস। কাজে আসেনি তেওটিয়া (২০) বা উনাদকাটের (২৪) চেষ্টাও। এদিন চেন্নাইয়ের জয়ের কারিগর বলতে গেলে দলের বোলাররাই। আরও ভাল করে বললে মঈন আলি। তিন ওভারে মাত্র ৭ রান দিয়ে তিনটি উইকেট পান তিনি। এছাড়া জাদেজা এবং কুরান দুটি উইকেট পান।

[আরও পড়ুন: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন মুরলিধরন, কবে যোগ দেবেন হায়দরাবাদ শিবিরে?]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next