Advertisement

‘হ্যান্ডশেক করলে মেয়ে বলে মনেই হয় না’, স্বদেশের খেলোয়াড়কেই কটূক্তি প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

09:28 PM Jul 15, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিতর্কে প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার আবদুল রাজ্জাক (Abdul Razzaq)। নিজের দেশের মহিলা ক্রিকেটার নিদা দারের উদ্দেশে নারীবিদ্বেষী মন্তব্য করার অভিযোগ উঠল পাকিস্তানের (Pakistan) প্রাক্তন এই অলরাউন্ডারের বিরুদ্ধে। যদিও নেটিজেনদের কাছে পালটা কথাও শুনতে হয়েছে রাজ্জাককে। অনেক ক্রিকেটভক্তই তাঁর এই মন্তব্যের সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ঠিক কী ঘটেছিল? জানা গিয়েছে, সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে একসঙ্গেই উপস্থিত হয়েছিলেন আবদুল রাজ্জাক এবং পাকিস্তান মহিলা ক্রিকেট দলের সদস্য নিদা দার। খেলার জগতে মহিলাদের অবদান নিয়ে আলোচনা চলছিল। তখনই কথা বলতে বলতে নিদার নামে নারীবিদ্বেষী মন্তব্যটি করেন রাজ্জাক। তিনি বলেন, দারের মতো মহিলা ক্রিকেটাররা পুরুষদের সঙ্গেও প্রতিযোগিতায় নামতে পারেন। তাঁরা যে যেকোনও কাজ করতে সক্ষম সেকথাও প্রমাণ করতে পিছপা হন না। কিন্তু এরপরই বিতর্কিত মন্তব্যটি করে বসেন রাজ্জাক। দারের হাত অনেকটাই পুরুষালি এবং মহিলা ক্রিকেটারদের অনেকেই বিয়ে করতে উৎসাহিত হন না।

[আরও পড়ুন: ইউরো ও কোপা চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে এবার আয়োজিত হবে ‘মারাদোনা কাপ’? তুঙ্গে জল্পনা]

রাজ্জাককে বলতে শোনা যায়, “মহিলারা যখন ক্রিকেটার বনে যান, তখন তাঁরা পুরুষদের সঙ্গে সমানভাবে টক্কর দেওয়ার চেষ্টা করেন। ওঁরা প্রমাণ করতে চান শুধু পুরুষরা নন, তাঁরাও যেকোনও কাজ করতে সক্ষম। ওঁদের বিয়ে করার ইচ্ছেও থাকে না। এমনকী ওই ক্রিকেটারদের সঙ্গে হাত মেলালে আপনি বুঝতেই পারবেন না, ওটা পুরুষ না মহিলার হাত।” আর রাজ্জাকের এই মন্তব্যটি নিয়েই তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়। এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে সমালোচনায় মুখর হন নেটিজেনরা। বিভিন্ন মহল থেকে প্রত্যেকে তাঁর এই ধরনের মন্তব্যের নিন্দাও করেন।

 

[আরও পড়ুন: পন্থের পর কোভিডে আক্রান্ত টিম ইন্ডিয়ার আরেক সদস্য, আইসোলেশনে ঋদ্ধিও]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next