Advertisement

IND vs SL: অনবদ্য ইনিংসে সৌরভের রেকর্ড ভাঙলেন ধাওয়ান, সহজ জয় ভারতের

10:19 PM Jul 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

শ্রীলঙ্কা: ২৬২-৯ (করুণারত্নে ৪৩, সনাকা ৩৯)
ভারত: ২৬৩-৩ (ধাওয়ান ৮৬, ঈশান কিষাণ ৫৯)
ভারত ৭ উইকেটে জয়ী

Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩৫ বছর ২২৫ দিন বয়সে প্রথমবার ভারতের অধিনায়কত্ব করে এমনিতেই ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেলেছিলেন শিখর ধাওয়ান (Sikhar Dhawan)। রবিবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে নিজের নামের পাশে আরও একটি রেকর্ড লিখিয়ে ফেললেন টিম ইন্ডিয়ার গব্বর। বিরাট কোহলির (Virat Kohli) পর দ্বিতীয় দ্রুততম ভারতীয় হিসেবে ৬ হাজার রানের গণ্ডি পেরলেন ধাওয়ান। এর আগে এই রেকর্ড ছিল কিংবদন্তি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দখলে। বিরাট মাত্র ১৩৬ ইনিংসে ৬ হাজার রানের গণ্ডি পেরিয়েছিলেন। ধাওয়ান নিলেন ১৪০ ইনিংস। সৌরভ এই মাইলস্টোন ছুঁতে নিয়েছিলেন ১৪৭টি ইনিংস। শুধু রেকর্ড গড়াই নয়। রবিবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে গব্বর যে ইনিংসটি খেললেন, সেটি এককথায় অনবদ্য। যাকে বলে ম্যাচ উইনিং ইনিংস। অধিনায়ককে যোগ্য সঙ্গত করলেন অভিষেক ম্যাচে খেলতে নামা ঈশান কিষাণ এবং পৃথ্বী শ’। যার ফলে লঙ্কা বাহিনীর বিরুদ্ধে ৭ উইকেটে সহজেই জয় পেয়ে গেল ভারত (Indian Cricket Team)।

কলম্বোর ব্যাটিং সহায়ক পিচে এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন লঙ্কা অধিনায়ক সনাকা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা বেশ ভাল করে শ্রীলঙ্কার ওপেনিং জুটি। আবিষ্কা ফার্নান্ডো আউট হওয়ার আগে পর্যন্ত সহজেই ভারতীয় পেসারদের মোকাবিলা করছিলেন লঙ্কার ব্যাটসম্যানরা। গোল বাঁধল স্পিনারদের আগমনে। প্রথম ওভারেই চাহার তুলে নিলেন আবিষ্কাকে (৩২)। ১৭ তম ওভারে দুটি উইকেট তুললেন কুলদীপ। দীর্ঘদিন বাদে ভাল বল করলেন টিম ইন্ডিয়ার চায়নাম্যান স্পিনার। এরপরই খেই হারিয়ে ফেলে লঙ্কাব্রিগেড। মিডল ওভারে অসালাঙ্কা (৩৮), সনাকারা (৩৯) ভাল শুরু করলেও বড় ইনিংস কেউ খেলতে পারেননি। ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৬২ রানে শেষ হয় শ্রীলঙ্কার ইনিংস। শেষদিকে করুণারত্নে ৩৫ বলে ৪৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস না খেললে আড়াইশো পেরতেও চাপে পড়তে হত শ্রীলঙ্কাকে।  ভারতের হয়ে এদিন দুটি করে উইকেট পেয়েছেন চাহার, চাহাল এবং কুলদীপ। একটি করে উইকেট তুলেছেন পাণ্ডিয়া ভাইরা।

[আরও পড়ুন: India vs Sri Lanka: কলম্বোয় লড়াকু ইনিংস শ্রীলঙ্কার, ভেলকি ভারতীয় স্পিনারদেরও]

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ঝড়ের গতিতে এগোতে থাকে ভারত। তরুণ ওপেনার পৃথ্বী শ’ (Prithwi Shaw) মাত্র ২৪ বলে ৪৩ রানের ইনিংস খেলেন। পৃথ্বীর উইকেটের পরও রানের গতি কমেনি ভারতের। এদিন অভিষেক ম্যাচে নামা ঈশান কিষাণ (Ishan Kishan) একই গতিতে শ্রীলঙ্কার বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করতে থাকেন। মাত্র ৪২ বলে ৫৯ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। প্রথম ১০ ওভারেই ভারত তুলে ফেলে ৯১ রান। যা কিনা গত ৯ বছরে পাওয়ার-প্লেতে ভারতের তোলা সর্বোচ্চ রান। তরুণদের ভিড়ে শিখর ধাওয়ান শুরুটা ধীরে করেছিলেন। একদিক ধরে ম্যাচ শেষ করার পরিকল্পনা নিয়ে নেমেছিলেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক। এবং সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নও করলেন। ১৩  ওভার ২ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নিল ভারত।

Advertisement
Next