Advertisement

একাত্মতা বাড়াতে কথা বলতে হবে বাংলায়, অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হয়েই নির্দেশ Laxmi Ratan Shukla’র

06:13 PM Jul 27, 2021 |
Advertisement
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনওকিছু পোস্ট করা যাবে না। কেউ বড় চুল রাখতে পারবেন না। কারও চুল বড় থাকলে, সেটা কেটে আসতে হবে। বাংলায় কথা বলতে হবে। না, কোনও স্কুলের নিয়মকানুন নয়। এটা ক্রিকেট দলের নির্দেশিকা। অনূর্ধ্ব-২৩ বাংলা (Under-23 Bengal Team) টিম।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

যে নির্দেশিকা দিয়েছেন স্বয়ং কোচ লক্ষ্মীরতন শুক্লা (Laxmi Ratan Shukla)। বাংলার জার্সিতে প্রাক্তন বঙ্গ অধিনায়কের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু হল সোমবার থেকে। অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ প্রস্তুতির প্রথম দিনই ক্রিকেটারদের বুঝিয়ে দিয়েছেন, সব দেখনদারি বিসর্জন দিতে হবে। ফোকাস থাকবে শুধুমাত্র ক্রিকেটে। বাংলাকে ট্রফি দিতে হবে। তার জন্য প্রত্যেককে নিয়ম-কানুন মেনে চলতে হবে। জীবনকে শৃঙ্খলায় বাঁধতে হবে। লক্ষ্মী বলছিলেন, “আমার কাছে একটা ব্যাপার খুব পরিষ্কার। আগে বাংলার হয়ে সত্তর-আশিটা ম্যাচ খেলো। বাংলাকে ট্রফি জেতাও। রনজি জেতাও। তারপর যা ফ্যাশন করার করতে পারো। কিন্তু এখন সময়টা হল শুধু স্ট্রাগলের আর বাংলার হয়ে অবদান রাখার। এর বাইরে আর অন্য কিছু নিয়ে ভাবার দরকার নেই। সব জায়গাতেই আপনাকে ডিসিপ্লিনড হতে হবে। আমি কোনও ফতোয়া জারি করিনি। কিন্তু ওদের পরিষ্কার বলে দিয়েছি, যেন সবার মধ্যে ক্রিকেটীয় একটা ছাপ থাকে। ফ্যাশন করার সময় প্রচুর পাবে।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: Corona আক্রান্ত ক্রুণাল পাণ্ডিয়া, স্থগিত ভারত-শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় T-20 ম্যাচ]

এখানেই শেষ নয়। প্র্যাকটিসে প্রথম দিন তিনি পরিষ্কার করে জানিয়ে দিয়েছেন, টিমে একাত্মতা বাড়াতে বাংলায় কথাবার্তা বলতে হবে। ইদানিং বাংলা ক্রিকেট (Bengal Cricket) নিয়ে একটা কথা খুব প্রচলিত। টিমে এখন আর নাকি কেউ বাংলায় কথা বলেন না। বেশিরভাগ ক্রিকেটারের সঙ্গেই হিন্দিতে কথা বলতে হয়। লক্ষ্মী বলছিলেন, “আপনি যে রাজ্যের হয়ে খেলবেন, সেই রাজ্যের সংস্কৃতি, আবেগকে বুঝতে হবে। তবেই একাত্মতা আসবে। টিম বন্ডিং বাড়বে। আমি সেই কারণেই সবাইকে বলেছি বাংলার কথা বলার চেষ্টা করো।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next