Advertisement

আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বের আগেই নাইট শিবিরে অশান্তি, অধিনায়ক মর্গ্যানকে তোপ কুলদীপ যাদবের

06:39 PM Sep 14, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলের (IPL) আমিরশাহী পর্ব শুরু হতে আর দিন পাঁচেক। তার আগে কলকাতা নাইট রাইডার্স (KKR) শিবিরে বড়সড় অশান্তির আঁচ। খোদ অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানের বিরুদ্ধে বিস্ফোরণ ঘটালেন নাইটদের অন্যতম সেরা স্পিনার কুলদীপ যাদব। বকলমে তিনি অভিযোগ করলেন, তাঁকে নিজের প্রতিভা প্রদর্শনের সুযোগই দেওয়া হচ্ছে না। বললেন, ঠিক কী কারণে তিনি দল থেকে বাদ পড়েছেন, সেটা নাকি তাঁকে জানানোই হয়নি। অধিনায়ক বা টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে তাঁর তেমন যোগাযোগই নেই।

Advertisement

আসলে ক্রিকেট কেরিয়ারের সবচেয়ে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন কুলদীপ (Kuldeep Yadav)। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হোক কিংবা আইপিএল, নিয়মিত সুযোগ হচ্ছে না কোথাও। ভারতীয় টেস্ট টিম (Indian Test Team) থেকে বাদ পড়েছেন! এমনকী আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের দলেও সুযোগ পাননি। অথচ বছর দেড়েক আগেও কুলদীপকে ভারতের অন্যতম সেরা স্পিনার বলে মনে করা হত। কিন্তু সময় যত এগিয়েছে কুলদীপ পারফরম্যান্সের গ্রাফও পড়েছে। আপাতত কোনও ফরম্যাটেই জাতীয় দলে নিয়মিত নন তিনি। এমনকী, আইপিএলের প্রথম পর্বে সাত ম্যাচের একটিতেও খেলার সুযোগ পাননি এই চায়নাম্যান স্পিনার। সেটা নিয়েই এবার ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: IPL 2021: আমিরশাহিতে কেকেআরের বিরুদ্ধে নীল জার্সি পরবেন কোহলিরা, জানেন কেন?]

সম্প্রতি প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপড়ার ইউটিউব চ্যানেলে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কুলদীপ বলেছেন,”যদি আমরা কোচ এবং অধিনায়কের সঙ্গে দীর্ঘসময় কাজ করার সময় পাই তাহলে সুবিধা হয়। কোচ এবং ম্যানেজমেন্ট আমাদের বুঝতে পারে।কিন্তু যদি যোগাযোগই না থাকে তাহলে সমস্যা হয়। অনেক সময় বুঝতেই পারি না দল আমার কাছে কী চাইছে, আদৌ সুযোগ পাব কিনা। কখনও কখনও মনে হয়, আমার দলে থাকা উচিত। ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা আমার আছে। কিন্তু বুঝতে পারি না, কেন বাদ দেওয়া হয়।”

[আরও পড়ুন: পথের প্রাণীদের জন্য মানবিক উদ্যোগ বিরাট-অনুষ্কার, মুম্বইয়ে খুলল ট্রমা সেন্টার]

তিনি কী ধরনের ক্রিকেটার সেটা কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান আদৌ বোঝেন কিনা, সেটা নিয়েই সন্দিহান কুলদীপ। তাঁর বক্তব্য,”জানি না মর্গ্যান আমাকে কী চোখে দেখে। বিদেশি অধিনায়ক হলে কথাবার্তা বলতে সমস্যা হয়। ভারতীয় কেউ অধিনায়ক হলে তাঁদের সঙ্গে সরাসরি গিয়ে কথা বলা হয়। এই ধরুন রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) যদি অধিনায়ক হন, তাহলে অনায়াসে গিয়ে ওঁর সঙ্গে কথা বলা যায়।” কুলদীপের সাফ কথা, ভারতীয় দল থেকে বাদ গেলে, জানানো হয়।কিন্তু কেকেআর ম্যানেজমেন্ট নাকি তেমন জানানোরও প্রয়োজন বোধ করে না।  

Advertisement
Next