Advertisement

T-20 World Cup: দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে আরও বিপাকে পোলার্ডরা, বিতর্কে জড়িয়ে ম্যাচ থেকে বাদ ডি কক

08:29 PM Oct 26, 2021 |

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ১৪৩/৮
দক্ষিণ আফ্রিকা: ১৪৪/২
দক্ষিণ আফ্রিকা জয়ী ৮ উইকেটে

Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কে বলবে, এরাই গতবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন? প্রথম ম্যাচে বিনা যুদ্ধেই সাম্রাজ্য ছাড়তে হয়েছিল। মঙ্গলবার দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa) সঙ্গেও লড়াই জমাতে পারলেন না কায়রন পোলার্ডরা। ফলস্বরূপ, সেমিফাইনালের রাস্তা কার্যত বন্ধই হয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। তবে বিশ্বকাপে জয়ের সরণিতে ফিরেও এদিন বিতর্ক পিছু ছাড়ল না প্রোটিয়াবাহিনীর। ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার ‘বিরাগভাজন’ হয়ে ম্যাচ থেকেই বাদ পড়লেন কুইন্টন ডি কক।

টস জিতে পোলার্ডবাহিনীকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠান বাভুমা। ক্যারিবিয়ান টপ অর্ডার শুরুটা মন্দ করেনি। ৫৬ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন এভিন লুইস। তবে সিমনস, পুরান, গেইলরা সেভাবে হাল ধরতে পারেননি। দলকে আবার টেনে তোলার চেষ্টা করেন অধিনায়ক পোলার্ড। প্রেটোরিয়াসের ডেলিভারিতে ২৬ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। তবে তারপর প্রোটিয়া বোলারদের ঝড়ে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং। প্রেটোরিয়াস তিনটি এবং কেশব মহারাজ জোড়া উইকেট তুলে নেন। স্কোরবোর্ডে ১৪৩ রান নিয়ে বল করতে নামেন পোলার্ডরা। তবে ম্যাচে বল গড়ানোর আগেই উসকে যায় বিতর্ক। বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে দক্ষিণ আফ্রিকার কুইন্টন ডি কক।

[আরও পড়ুন: T20 World Cup: ‘দেশের ক্রিকেটারকে সম্মান করুন’, শামির পাশে দাঁড়িয়ে সরব পাক তারকা রিজওয়ান]

গত ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৫৫ রানেই গুটিয়ে গিয়েছিল ক্যারিবিয়ান (West Indies) ইনিংস। এ ম্যাচে তাও সম্মানজনক জায়গায় পৌঁছয় স্কোর। কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা হল না। ক্যারিবিয়ানদের শেষ চারে পৌঁছনোর স্বপ্ন কার্যত ভেঙেই দিল ডুসেন ও মারক্রাম জুটি। ওপেন করতে নেমে ক্যাপ্টেন ব্যর্থ হলেও আরেক ওপেনার হেনড্রিক্স ৩৯ রান করে ভিত গড়ে দেন। বাকি কাজটা সারেন ডুসেন (৪৩*) ও মারক্রাম (৫১*)। তবে ম্যাচে বল গড়ানোর আগেই উসকে যায় বিতর্ক। বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে দক্ষিণ আফ্রিকার কুইন্টন ডি কক।

ঘটনাটা ঠিক কী? চলতি বিশ্বকাপের (T20 World Cup 2021) প্রতিটা ম্যাচের শুরুতে বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ প্রদর্শন করছেন ক্রিকেটাররা। ‘ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটার্স’- এই মন্ত্রেই হাঁটু গেড়ে বসে জানাচ্ছেন প্রতিবাদ। কিন্তু ডি কক নাকি এই প্রতীকী প্রতিবাদে শামিল হতে চাননি। পরে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়, ডি কক নাকি ব্যক্তিগত কারণে এই ম্যাচে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে তাঁকে দল থেকে বাদ দেওয়ার নেপথ্য কারণ কী, তা গোপন করেনি বোর্ড। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রত্যেক ক্রিকেটারকেই বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে কাউকে জোর করা হবে না। নিজের ইচ্ছায় ক্রিকেটাররা প্রতিবাদ জানাবেন। কিন্তু ডি কক প্রথম ম্যাচেও হাঁটু গেড়ে বসতে অস্বীকার করেন। এদিনও জানিয়ে দেন নিজের ব্যক্তিগত সমস্যার কথা। গোটা দলের বিরুদ্ধ কাজ করেছেন ডি কক। টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনা করে তাঁর বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।

[আরও পড়ুন: ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের সাফল্যকে ‘ইসলামের জয়’ বলে বিতর্কে ইমরান খানের মন্ত্রী]

Advertisement
Next