Advertisement

T-20 World Cup: বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ না জানিয়ে বিপাকে, অবশেষে ক্ষমা চাইলেন কুইন্টন ডি কক

04:10 PM Oct 28, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের বল গড়ানোর আগে থেকেই শুর হয় বিতর্ক। বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেট কিপার কুইন্টন ডি কক। এবারের বিশ্বকাপের (T20 World Cup 2021) প্রতিটা ম্যাচের শুরুতে বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদ দেখাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা কুইন্টন ডি কক (Quinton de Kock) এই প্রতীকী প্রতিবাদে শামিল হতে চাননি। ডি কককে নিয়ে তার পর থেকেই শুরু হয় দারুণ বিতর্ক।

Advertisement

বিতর্ক প্রশমিত করতে ক্ষমা চেয়ে নেন কুইন্টন। এ বার থেকে ম্যাচের আগে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদ জানাবেন ডি কক। এমনটাই জানিয়েছেন প্রোটিয়া তারকা। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (South Africa Cricket Board) টুইটারে জানিয়েছেন, অন্যদের শিক্ষিত করার জন্য এবার থেকে কুইন্টন ডি কক হাঁটু মুড়ে বসে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাবেন। কুইন্টন ডি কক নিজেও জানিয়েছেন, ”আমি আমার সতীর্থদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। সেই সঙ্গে দেশের সমর্থকদের কাছেও ক্ষমা চাইছি। অন্যদের শিক্ষিত করতে পারলে এবং তাদের জীবন ভাল করতে পারলে আমার থেকে বেশি খুশি আর কেউ হবে না।” 

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: T-20 World Cup: দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে আরও বিপাকে পোলার্ডরা, বিতর্কে জড়িয়ে ম্যাচ থেকে বাদ ডি কক]

 

হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদ দেখাতে না চাওয়ায় কুইন্টন ডি কককে বর্ণবিদ্বেষী বলা শুরু হয়। এতে ব্যথিত ও দুঃখিত তারকা। তিনি বলেন, ”আমাকে বর্ণবিদ্বেষী বলায় আমি আহত। আমার পরিবারকে আঘাত করা হয়েছে। আমার সন্তানসম্ভবা স্ত্রীও আহত হয়েছে গোটা ঘটনায়। আমি বর্ণবিদ্বেষী নই। এটা আমি জানি। আমাকে যাঁরা চেনেন তাঁরাও জানেন তা।”

কুইন্টন ডি কক আরও বলেন, ”ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে না নেমে আমি কাউকে আঘাত করতে চাইনি। আমাকে ভুল বোঝা হচ্ছে।” প্রবল বিতর্কের মুখে ক্ষমা চেয়ে নেওয়ার পাশাপাশি কুইন্টন ডি কক এও জানিয়ে দিয়েছেন, এবার থেকে বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে হাঁটু মুড়ে বসে তিনি প্রতিবাদ জানাবেন।   

 

[আরও পড়ুন: T20 World Cup: ‘দেশের ক্রিকেটারকে সম্মান করুন’, শামির পাশে দাঁড়িয়ে সরব পাক তারকা রিজওয়ান]

Advertisement
Next