Advertisement

IND vs SA: জোহানেসবার্গে লেখা হল না জয়ের ইতিহাস, দুরন্ত ব্যাটিং করে সিরিজে সমতা ফেরালেন এলগার

09:35 PM Jan 06, 2022 |

ভারত: ২০২/১০ (রাহুল-৫০, অশ্বিন-৪৬) ও ২৬৬/১০ (রাহানে ৫৮, পূজারা-৫৩)
দক্ষিণ আফ্রিকা: ২২৯/১০ (পিটারসেন-৬২, বাভুমা-৫১, শার্দূল-৬১/৭) ও ২৪৩/৩ (এলগার ৯৬*, ডুসেন ৪০)
৭ উইকেটে জয়ী দক্ষিণ আফ্রিকা

Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৃষ্টিটা কি আরও খানিকক্ষণ চলবে? চতুর্থ দিনের খেলাটা ভেস্তে গেলে মন্দ হয় না। মনে মনে বহু ভারতীয় সমর্থক হয়তো এমনটাই চাইছিলেন। অন্তত একটা দিন কম পেলে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলতে অন্তত খানিকটা বেগ পেতে হত দক্ষিণ আফ্রিকাকে। কিন্তু বাস্তবে তেমন কিছুই হল না। বরং বৃষ্টিবিঘ্নিত দিনেই হাসতে হাসতে সিরিজে সমতা ফেরাল দক্ষিণ আফ্রিকা। সৌজন্যে প্রোটিয়া অধিনায়কের অনবদ্য ইনিংস। এককথায় যাকে বলে, ‘ক্যাপ্টেন লিডিং ফ্রম দ্য ফ্রন্ট’। আর তাতেই গত ২৯ বছরে প্রথমবার ওয়ান্ডারার্সে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে পরাস্ত হল টিম ইন্ডিয়া।

Advertising
Advertising

দ্বিতীয় টেস্টের শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছিল ভারতীয় শিবির। পিঠে চোট পাওয়ায় শেষ মুহূর্তে ছিটকে যান অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রথমবার টেস্টে নেতৃত্বের গুরু দায়িত্ব এসে পড়ে কেএল রাহুলের কাঁধে। তা নিয়েও প্রথম ইনিংসে দুরন্ত ব্যাটিং করেছিলেন ঠিকই, কিন্তু দলগত পারফরম্যান্স খারাপ হতেই ধুঁকতে শুরু করে স্কোরবোর্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংস ২২৯ রানে আটকে দিলেও দ্বিতীয় ইনিংসে আর রোখা গেল না হোম ফেভারিটদের। ম্যাচের তৃতীয় দিন যে দুর্দান্ত ছন্দে শুরু করেছিলেন এলগার, লক্ষ্মীবারে বৃষ্টির পরও সেই ফর্ম ধরে রাখলেন। ৪০ রান করে তাঁর সঙ্গ দেন ভ্যান ডুসেন। শেষে অপরাজিত বাভুমাকে (২৩*) সঙ্গে নিয়ে মাঠ ছাড়েন এলগার।

[আরও পড়ুন: ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত ভারতীয় দল, বাংলা থেকে জায়গা পেলেন ঝুলন এবং রিচা]

১৯৯২/৯৩ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত জোহানেসবার্গে কোনও টেস্ট হারেনি ভারতীয় দল (Team India)। এই মাঠে দুটি জয় ও তিনটি ড্রয়ের ইতিহাস রয়েছে।শুধু তাই নয়, এই মাঠের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন দলের বর্তমান কোচ রাহুল দ্রাবিড়। শতরান করে ওয়ান্ডারার্সকে প্রিয় মাঠের তালিকায় রাখতে সফল হয়েছিলেন কোহলিও (Virat Kohli)। এবার বল হাতে জ্বলে উঠেছিলেন শার্দূল ঠাকুর। প্রথম ইনিংসে একাই সাতটি উইকেট তুলে নিয়ে নজির গড়েন। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে প্রোটিয়াদের ব্যাটিং লাইন আপে চিড় ধরাতে ব্যর্থ ভারতীয় বোলাররা। একটি করে উইকেট নেন শামি, শার্দূল ও অশ্বিন।

১১ জানুয়ারি থেকে কেপ টাউনে শেষ টেস্ট। সেখানেই নির্ধারিত হবে টিম ইন্ডিয়ার ভাগ্য। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে কি আদৌ টেস্ট সিরিজ জয়ের ইতিহাস গড়তে পারবে ভারত? তারই উত্তর দেবে কেপ টাউন।  

[আরও পড়ুন: নতুন বছরে বড় চমক, ক্রোয়েশিয়ার ক্লাব থেকে এটিকে মোহনবাগানে ফিরলেন সন্দেশ]

Advertisement
Next