‘সৌরভই সরিয়েছে শাস্ত্রীকে’, ইউটিউবে বিস্ফোরক দাবি প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার রশিদ লতিফের

11:00 AM Jan 28, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের (Sourav Ganguly) সঙ্গে সংঘাতের জেরেই জাতীয় দলের কোচের পদ থেকে সরতে হয়েছে রবি শাস্ত্রীকে (Ravi Shastri)। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এমনটাই দাবি করেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন উইকেট কিপার রশিদ লতিফ (Rashid Latif)।

Advertisement

বিরাট কোহলির টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছাড়ার জন্য এর আগেও প্রাক্তন পাক উইকেট কিপার সৌরভের দিকেই আঙুল তুলেছিলেন। এবার তিনি ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন, ”রবি শাস্ত্রীকে কোচের পদ থেকে সরিয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ই। এগুলো সব শুরু হয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে থেকেই।” রশিদ লতিফের বক্তব্য, শাস্ত্রীর কোনও কোচিং কোর্স ছিল না। তবুও তিনি সরাসরি কোচ হয়েছিলেন জাতীয় দলের।

[আরও পড়ুন: নিজের ভালর জন্য ক্রিকেট থেকে সাময়িক বিরতি নেওয়া উচিত কোহলির! পরামর্শ দিলেন শাস্ত্রী]

শাস্ত্রীর আগে অনিল কুম্বলেকে বিশ্রী ভাবে কোচের পদ থেকে সরানো হয়েছে। লতিফের বক্তব্য, ”কুম্বলে ৬০০-র বেশি উইকেট নিয়েছে। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আর রাহুল দ্রাবিড় খেলেছে কুম্বলের সঙ্গে। ফলে এই গ্রুপ খুবই শক্তিশালী।” প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার তাঁর ইউটিউবে বলেছেন, ”শাস্ত্রীকে সৌরভই বলেছে, বস, এবার যাওয়ার সময় হয়েছে। যদিও শাস্ত্রী কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার ভাবনাচিন্তা আগেই করে ফেলেছিল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে থেকেই শুরু হয়েছিল এই সব ব্যাপার। এই ধরনের ব্যক্তিগত সংঘাত ভারতীয় ক্রিকেটকে প্রভাবিত করেছে।”

Advertising
Advertising

লতিফের মতে, নব্বইয়ের দশকের গোড়ার দিকে এমনই সব ঘটনা ঘটত পাকিস্তান ক্রিকেটে। এখন তা ঘটছে ভারতীয় ক্রিকেটে। লতিফ আরও বলেন, ”মাঠের বাইরের এই ধরনের টেনশন দলের পারফরম্যান্স খারাপ করে। আর ঠিক তাই হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটে।”

বিরাট কোহলি আচমকা টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার পরে ওয়াঘার ওপার থেকে একাধিক প্রাক্তন পাক-ক্রিকেটার নিজেদের মতামত জানিয়েছেন। দানিশ কানেরিয়ার মতো প্রাক্তন পাক লেগ স্পিনার ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়ানডে সিরিজ চলাকালীন জানিয়েছিলেন, ভারতীয় শিবির দু’ ভাগে বিভক্ত। লোকেশ রাহুল আর বিরাট কোহলি আলাদা আলাদা ভাবে বসে রয়েছেন সাজঘরে। রশিদ লতিফ এর আগেও কোহলির নেতৃত্ব ছাড়ার পিছনে দায়ী করেছিলেন সৌরভকে। এবার শাস্ত্রীকে কোচিং পদ থেকে সরানোর জন্য় বোর্ড প্রেসিডেন্টের কথাই উল্লেখ করলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: উত্তাপ বাড়ছে শনিবাসরীয় ডার্বির, আক্রমণে এগিয়ে রয় কৃষ্ণরা]

 

Advertisement
Next