IPL 2022: ‘সময় নেই তাই হানিমুন হচ্ছে না’, ইডেনে খেলা দেখতে গিয়ে আক্ষেপ অরুণ লালের স্ত্রী বুলবুলের

09:53 PM May 25, 2022 |
Advertisement

সুলয়া সিংহ: চলতি মাসের ২ তারিখ বিয়ে হয়েছে বাংলার কোচ অরুণ লাল (Arun Lal) ও স্কুল শিক্ষিকা বুলবুল সাহার (Bulbul Saha)। চার হাত এক হওয়ার পর থেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন বুলবুল। পরীক্ষার খাতা দেখছেন। তাই একটুও সময় নেই হাতে। যেতেও পারছেন না হানিমুনে। ইডেন গার্ডেন্সে অরুণ লালের সঙ্গে খেলা দেখতে এসে সেই আক্ষেপ করলেন বুলবুল। অকপট বুলবুল সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালকে বলছেন, ”আমি পরীক্ষার খাতা দেখতে ব্যস্ত। এখন শহরের বাইরে যাওয়া সম্ভবই নয়। আর আইপিএলের পরে শুরু হয়ে যাবে রনজি ট্রফি। ফাইনাল পর্যন্ত নো চান্স।” ফলে এখনই যাওয়া হচ্ছে না মধুচন্দ্রিমায়। 

Advertisement

দিন কয়েক আগে অরুণ লাল ও বুলবুলের বিয়ে নিয়ে কালি খরচ হয়েছিল বিস্তর। সেই বহুল চর্চিত বিয়ের পরে কেটে গিয়েছে প্রায় সপ্তাহ তিনেক। চরম ব্যস্ততার মধ্যেও ক্রিকেট থেকে দূরে সরে থাকতে আর পারলেন কোথায় বুলবুল ও অরুণ লাল! ক্রিকেটের টান যে এমনই অমোঘ। আইপিএলের ছোঁয়ায় প্রাণের জোয়ার এসেছে ইডেনে। শহরের সব রাজপথ আজ এসে মিশেছে ইডেনে। বুলবুল সাহাকে নিয়ে অরুণ লাল এসেছেন বাঙালির বড় প্রিয়, বড় আবেগের ক্রিকেট মাঠে। বুলবুল জানালেন তিনি কেকেআর ভক্ত।

[আরও পড়ুন: ‘মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে ইয়াসিন মালিককে’, টুইট আফ্রিদির, কড়া জবাব অমিত মিশ্রের]

কিন্তু কলকাতা যে এবার ভক্তদের হতাশ করেছে। প্লে অফের ছাড়পত্র জোগাড় করতেই পারেনি। তাই মনে দুঃখ রয়েছে গোটা শহরের। বুলবুলও যে দুঃখিত। কিন্তু শহর কলকাতা খেলার সমঝদার। যে দল ভাল খেলবে সেই দলের হয়েই গলা ফাটাবে এই শহরের দর্শক। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (RCB) ও লখনউ সুপার জায়ান্টসের (LSG) ম্যাচ দেখতে দেখতে বুলবুল বলছিলেন, ”ইডেনে একসঙ্গে দু’ জনে বসে এই প্রথম খেলা দেখছি। আর উপভোগ করছি ম্যাচ।” বিয়ের আগেও ক্রিকেটের নন্দনকাননে অরুণ লাল ও বুলবুল সাহা একসঙ্গে বসে খেলা দেখেননি। সেদিক থেকে দেখতে গেলে বিয়ের পরই প্রথম বার একসঙ্গে বসে খেলা দেখছেন নব দম্পতি। গুজরাট বনাম রাজস্থান ম্যাচেও এসেছিলেন বুলবুল। কিন্তু স্বামীর সঙ্গে বসে খেলা দেখা হয়নি। 

Advertising
Advertising

গুজরাট টাইটান্স গতকাল জিতে আইপিএল ফাইনালে উঠে গিয়েছে। ব্যাঙ্গালোর ও লখনউ ম্যাচের মুখ্য আকর্ষণ বিরাট কোহলি। কোহলির জন্য গোটা শহর আজ ইডেনমুখী। বুলবুলই বা কীভাবে কোহলির থেকে বিমুখ হতে পারেন?  তিনি বললেন, ”বিরাটের জন্যই আরসিবিকে ভাল লাগে।” বিরাট এমনই এক তারকা যাঁর উপস্থিতি মাঠে ছড়িয়ে দেয় সুগন্ধী।  

বিরাট কোহলি খেলবেন ইডেন গার্ডেন্সে। শুধু এটুকুই পারদ চড়ার পক্ষে যথেষ্ট। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ও লখনউ সুপার জায়ান্টস ম্যাচে ইডেন কাণায় কাণায় পূর্ণ। কিন্তু বৃষ্টির জন্য মিনিট চল্লিশ পরে শুরু হয় খেলা। সাতটা পঞ্চান্ন মিনিট নাগাদ টস হয়। টস জেতেন লখনউ সুপার জায়ান্টসের অধিনায়ক লোকেশ রাহুল। টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় লখনউ। 

মহসিন খান এবারের টুর্নামেন্টে নজর কেড়েছেন। তাঁর বাঁ হাতের পেসে পরাস্ত হন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের অধিনায়ক ফ্যাফ দু’ প্লেসিস। খাতা না খুলেই দু’ প্লেসিস আউট হন। উইকেটের পিছনে তাঁকে তালুবন্দি করেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা উইকেট কিপার কুইন্টন ডি’ কক। ইনিংসের শুরুর দিকে বিরাট কোহলির খেলা দেখে ইডেনের দর্শকরা মনে করেছিলেন আজ বুঝি কোহলিরই দিন। কিন্তু আবেশ খানের বলে জায়গা করে নিয়ে যে শট খেলে আউট হলেন বিরাট (২৫), তা দেখে হতাশ ইডেন। বিরাট কি নিজেও হতাশ নন! আউট হওয়ার পরে মাথা নাড়াতে নাড়াতে মাঠ ছাড়লেন কোহলি। আর তাঁর আউট হওয়া দেখে সবার মতোই বুলবুলও হতাশ। 

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে কাটল জট, ইস্টবেঙ্গলের নতুন ইনভেস্টর হচ্ছে ইমামি গ্রুপ

Advertisement
Next