বৃষ্টির জন্য ভেস্তে গেল শেষ টি-২০, অমীমাংসিতভাবেই শেষ ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

10:05 PM Jun 19, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘরের মাটিতে কি সিরিজ জিতে বাজিমাত করতে পারবে ঋষভ পন্থের টিম ইন্ডিয়া? নাকি সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকাই শেষ হাসি হাসবে, তার উত্তর পাওয়া যেত রবিবাসরীয় চিন্নাস্বামীতে। কিন্তু এ উত্তরের পথে ভিলেন হয়ে দাঁড়াল বৃষ্টি। টানা বর্ষণের জেরে ভেস্তেই গেল শেষ টি-টোয়েন্টি। ফলে ২-২-তেই শেষ হল সিরিজ।

Advertisement

বৃষ্টির পূর্বাভাস আগেই ছিল। শনিবারও বৃষ্টিতে ভিজেছিল বেঙ্গালুরু। আবহবিদরা জানিয়েছিলেন, এদিনও বিকেলের দিকে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই পূর্বাভাস সত্যি করেই এদিন সন্ধেয় নামে বৃষ্টি। যে কারণে টস হয়ে গেলেও খেলা শুরু হতে দেরি হয়। সন্ধে ৭টার বদলে মাঠে বল গড়ায় ৭টা ৫০ মিনিটে। ওভার কমিয়ে করা হয় ১৯। ২২ গজে নেমেই প্রথম ওভারে জোড়া ছক্কা হাঁকান ইশান কিষান। তবে ১৫ রান করেই ফেরেন প্যাভিলিয়নে। ব্যাট হাতে এদিন ব্যর্থ হন ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ও (১০)।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: গ্র্যাজুয়েট হল ইজহান! বিশেষ দিনে ছেলের পাশে না থাকতে পারায় মন খারাপ সানিয়া মির্জার]

ম্যাচের বয়স তখন ৩.৩ ওভার। ক্রিজে ঋষভ পন্থ এবং শ্রেয়স আইয়ার। ভারতের স্কোর ২৮ রানে ২ উইকেট। ফের ঝমঝমিয়ে নামে বৃষ্টি। ড্রেসিংরুমে ফেরেন ক্রিকেটাররা। ঢেকে দেওয়া হয় পিচ। এরপর থেকে কেবলই অপেক্ষার প্রহর গোনেন চিন্নাস্বামীর গ্যালারি ভরতি দর্শক। কিন্তু টি-টোয়েন্টি লড়াই দেখার ইচ্ছে পূরণ হল না তাঁদের। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষার পর জানিয়ে দেওয়া হল, আজকের মতো আর খেলার পরিস্থিতি নেই। ফলে সিরিজের ফল দাঁড়াল ২-২।

প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে পাঁচটিতেই টসে হারেন ক্যাপ্টেন পন্থ। এই সিরিজে বিশেষ রানও করতে পারেননি তিনি। অধিনায়কত্বের পাশাপাশি তাই ব্যাট হাতেও নিজেকে প্রমাণের তাগিদ ছিল তাঁর। তাছাড়া দীনেশ কার্তিক এ ম্যাচে কী করেন, সেদিকেও তাকিয়ে ছিলেন দর্শকরা। কারণ এখন তিনি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের তারকা। সেই অর্থে বেঙ্গালুরুর ‘ঘরের ছেলে’। এই সিরিজে দুর্দান্ত ফর্মে ধরা দিয়েছেন। কিন্তু তাঁর অভ্যর্থনার মাঝে কাঁটা হয়ে দাঁড়াল বৃষ্টি। ফলে একরাশ মন খারাপ নিয়েই বাড়ি ফিরতে হল ক্রিকেটপ্রেমীদের।   

[আরও পড়ুন: পিতৃদিবসেই প্রথমবার সন্তানের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন যুবরাজ সিং, জানালেন নামও

Advertisement
Next