আইপিএলের মতো টুর্নামেন্টে না খেললে বাড়তি টাকা, ঘরোয়া লিগের বাড়বাড়ন্ত রুখতে নয়া পন্থা পিসিবির

03:09 PM Jun 26, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড যে আইপিএলের (IPL 2022) মতো লিগের বিরোধী, সেটা অনেক আগেই তারা স্পষ্ট করে দিয়েছে। এবার আরও এক কাঠি এগিয়ে গিয়ে আইপিএলের মতো লিগে ক্রিকেটারদের খেলা বন্ধ করতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছেন পিসিবি (PCB) কর্তারা। আসলে পাক বোর্ড চাইছে সেদেশের সেরা তারকারা যাতে টি-২০ লিগে অংশ না নেয়।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

শনিবার পাক ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেটারদের চুক্তির নতুন ফরম্যাট ঘোষণা করেছে। পাক বোর্ড (Pakistan Cricket Board) লাল বলের ক্রিকেট এবং সাদা বলের ক্রিকেটের জন্য আলাদা আলাদা চুক্তি করবে। শুধু তাই নয়, ক্রিকেটারদের বেতনও বাড়ানো হচ্ছে। পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা (Ramiz Raja) জানিয়েছেন, আগামী মরশুম থেকে ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি ১০ শতাংশ বাড়ানো হবে। যারা দলে থাকবেন, কিন্তু প্রথম একাদশে সুযোগ পাবেন না, তাঁরা আগে পেতেন মূল ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ। এবার থেকে তাঁরাও পাবেন মূল ম্যাচ ফি’র ৭০ শতাংশ টাকা। মহিলা ক্রিকেটারদের বেতনও বাড়ানো হচ্ছে ১৫ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রে সরকার বাঁচাতে আসরে উদ্ধবের স্ত্রীও! ভাঙনের আশঙ্কায় কাঁটা বিক্ষুব্ধ শিবিরও]

রামিজ রাজা সভাপতি হয়ে আসার পর পিসিবির আর্থিক পরিস্থিতির খানিকটা উন্নতি হয়েছে। এ বছর তাঁরা ক্রিকেট সম্পর্কিত বিষয়ে ১৫০০ কোটি টাকা খরচ করবে। শুধু বেতন বাড়ানোই নয়। চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের সংখ্যাও বাড়াচ্ছে পিসিবি। আগে যেখানে মাত্র ২০ জন ক্রিকেটারলে বার্ষিক চুক্তির অন্তর্ভুক্ত করা হত, এবার সেখানে ৩৩ জন ক্রিকেটারকে বার্ষিক চুক্তি দেওয়া হবে। মহিলাদের ক্রিকেটেও চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: স্কুল আমল থেকে প্রেমের প্রস্তাব, পাত্তা না পেয়ে বদলা, সহপাঠীকে গুলি তরুণের ]

এসবটাই পিসিবি করছে শুধু ক্রিকেটারদের অন্যান্য ঘরোয়া লিগে খেলা আটকাতে। আসলে পিসিবির বক্তব্য, তাঁরা চাইছে না প্রথম সারির ক্রিকেটাররা ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে ক্লান্ত হয়ে পড়ুক। তাই ক্রিকেটারদের আর্থিক দিকটা খেয়াল রাখা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, যেসব ক্রিকেটার অন্যান্য ঘরোয়া লিগে খেলার সুযোগ পাবেন, তাঁদের সেই চুক্তির ৬০-৭০ শতাংশ টাকা বোর্ডই দেবে। এবং ক্রিকেটারদের বলা হবে, ওই লিগে না খেলতে।

Advertisement
Next