রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে কষ্টার্জিত জয় ভারতের, কেন শেষ ওভারে উমরান? ব্যাখ্যা দিলেন হার্দিক

11:59 AM Jun 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ২২৫ রান নিঃসন্দেহে বড় টার্গেট। এই রান তাড়া করতে নেমে টেনশনে পড়ে যায় অনেক বড় দলই। বাড়তে থাকা আস্কিং রেট মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায় ব্যাটসম্যানদের কাছে। এই পরিস্থিতিতে পড়েও আয়ারল্যান্ড কার্যত ঠান্ডা মাথায় লক্ষ্যমাত্রার প্রায় কাছাকাছি পৌঁছেও গিয়েছিল। ভারতীয় দলের বিরুদ্ধে তাঁদের এই লড়াই জয়ের থেকেও কোনও অংশে কম সাফল্যের নয়। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতেও কেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনভিজ্ঞ উমরান মালিকের হাতেই শেষ ওভারটা তুলে দিলেন ক্যাপ্টেন হার্দিক পাণ্ডিয়া? ম্যাচ শেষে দিলেন সেই ব্যাখ্যা।

Advertisement

জয়ের জন্য আয়ারল্যান্ডের শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৭ রান। টি-টোয়েন্টি ম্যাচে যা খুব একটা বড় ব্যাপার নয়। আইপিএলে প্রায়ই এমন টার্গেট পূরণ হতে দেখা গিয়েছে। এই অবস্থায় ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণের গুরুভার হার্দিক তুলে দিয়েছিলেন উমরানের (Umran Malik) হাতে। যাঁর কি না, ঠিক একটি ম্যাচ আগে দেশের জার্সিতে অভিষেক হয়েছিল। তাও আবার সে ম্যাচে মাত্র এক ওভারই করেছিলেন কাশ্মীরি পেসার। আসলে প্রতিপক্ষ ব্যাটারদের উপর চাপ বজায় রাখতেই উমরানকে বেছে নিয়েছিলেন হার্দিক (Hardik Pandya)। তিনি বলছিলেন, “আমি চাইছিলাম সমস্ত চাপটা ওদের উপরে থাক। সেই মতোই উমরানকে উৎসাহ দিচ্ছিলাম। ওর পেস আছে। আর সেই পেসের সম্মুখীন হয়ে ১৮ রান তোলা বেশ কঠিন। ওরা বেশ কিছু ভাল শট খেলেছে। ভাল ব্যাটও করেছে। তবে আমাদের বোলাররা যেভাবে চাপের মুখে বল করেছেন, তাতে জয়ের কৃতিত্ব ওদের দিতেই হবে।”

[আরও পড়ুন: ঝালদা উপনির্বাচনে জয়ী নিহত তপন কান্দুর ভাইপো মিঠুন, চন্দননগরে জিতলেন বামপ্রার্থী]

Advertising
Advertising

মঙ্গলবার টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমেছিল হার্দিকের টিম ইন্ডিয়া (Team India)। সঞ্জু স্যামসন এবং দীপক হুডার চওড়া ব্যাটেই আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে রানের পাহাড় তৈরি হয়। ৭৭ রানে আউট হন সঞ্জু। অন্যদিকে ৭৭ বলে ১০৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ম্যাচের সেরা হয়ে যান হুডা। দুই ম্যাচের সিরিজের সেরার পুরস্কারও ওঠে তাঁর হাতে। তবে ব্যাট হাতে খাতাই খুলতে পারেননি কার্তিক, অক্ষর প্যাটেল ও হর্ষল প্যাটেল। ১৩ রানে অপরাজিত থাকেন হার্দিক। জবাবে শুরু থেকেই মারকাটারি ব্যাটিং করেন আয়ারল্যান্ডের ব্যাটাররা। ১৮ বলে ৪০ রানের ইনিংস খেলেন স্টার্লিং। রবি বিষ্ণোই তাঁকে ফেরাতে না পারলে ম্যাচের ফল অন্যরকম হতেও পারত। তবে এর পরেও দমে যায়নি আয়ারল্যান্ড। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে ৫ উইকেটে ২২১ রান তোলে তারা। মাত্র ৪ রানে ম্যাচ জিতে দু’ ম্যাচের সিরিজ পকেটে পুরে নেয় ভারত।

তবে প্রথমবার নেতৃত্বের দায়িত্ব নিয়েই দলকে সিরিজ জেতাতে পেরে খুশি হার্দিক। বলেন, “ছোট থেকেই দেশের জার্সিতে খেলার স্বপ্ন দেখতাম। দলকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথমবার জেতানো সবসময়ই স্পেশ্যাল। দীপক আর উমরানের জন্যও দারুণ খুশি।”

[আরও পড়ুন: দমদম শাখায় ১০ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ট্রেন চলাচল, বাতিল ৩৮টি লোকাল, বিপাকে দূরপাল্লার যাত্রীরাও]

Advertisement
Next