সোমবারের পর মঙ্গলবারও দেরি করে শুরু হবে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ, এবার কারণ কী?

02:39 PM Aug 02, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পিছিয়ে দেওয়া হল ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (India vs West Indies) তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। নির্ধারিত সময়ের দেড় ঘণ্টা পরে শুরু হবে খেলা। প্রসঙ্গত, সোমবার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। সেখানে পাঁচ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মাত্র সতেরো রানে ছয় উইকেট তুলে নিয়ে ভারতের ব্যাটিংকে গুঁড়িয়ে দেন ওবেদ ম্যাকয়।

Advertisement

সোমবারের ম্যাচ শুরু হতে দেরি হয়েছিল। ত্রিনিদাদ থেকে সেন্ট কিটসে পৌঁছতে দেরি হয়েছিল দলের কিটব্যাগ। তার জন্য অপেক্ষা করতে গিয়ে দু’ ঘণ্টা দেরিতে ম্যাচ শুরু হয়। ভারতীয় সময় রাত আটটার পরিবর্তে দশটায় মাঠে নামেন ক্রিকেটাররা। পরপর দু’দিন ম্যাচ খেলতে নামার ফলে একেবারেই বিশ্রাম পাবেন না তাঁরা। সেই কথা মাথায় রেখেই তৃতীয় ম্যাচের সময় পালটে দেওয়া হয়েছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট সংস্থার তরফে এই কথা জানানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, আগামী ৬ এবং ৭ আগস্টেও পরপর দু’দিন ম্যাচ খেলতে হবে দুই দলকে। তাই ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেওয়া খুবই প্রয়োজন।

[আরও পড়ুন: হতাশায় খেলা ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন ! ভাবনা পালটে কমনওয়েলথে রুপো জয় সুশীলা দেবীর]

পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ আপাতত ১-১ সমতায় রয়েছে। দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের ইনিংস মাত্র ১৩৮ রানে গুটিয়ে যায়। ছয় উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচের সেরা হন ওবেদ ম্যাকয়। সেরার পুরস্কার নিয়ে ম্যাকয় (Obed McCoy) জানিয়েছেন, এই পারফরম্যান্স উৎসর্গ করেছেন তাঁর মাকে। ম্যাকয় জানিয়েছেন, “আমার মা খুবই অসুস্থ। কিন্তু এই অবস্থাতেও তিনি আমাকে ভাল খেলার অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছেন। পারফরম্যান্সের জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিতে চাই।” প্রতিপক্ষ অধিনায়ককে আউট করেছেন তিনি। সেই প্রসঙ্গে ম্যাকয় বলেছেন, “আমি সবসময় পাওয়ার প্লেতে উইকেট তুলতে চেষ্টা করি। শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল ভারত।”

Advertising
Advertising

ত্রিনিদাদের প্রথম ম্যাচে ৬৮ রানে জয় পেয়েছিল রোহিত-ব্রিগেড। পরের ম্যাচেই দুরন্ত কামব্যাক ক্যারিবিয়ান বাহিনীর। তাই সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভারতের কাছে। দ্বিতীয় ম্যাচে একটা সময় চাপে পড়ে গেলেও ম্যাচে বের করে নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটাররা। শেষ ওভারে বল করতে আসেন আবেশ খান। শেষ ওভারের প্রথম ডেলিভারিটাই ছিল ‘নো বল’। ফ্রি হিটে ছক্কা এবং পরের বলে চার মেরে ম্যাচ জেতান ডেভন টমাস। 

[আরও পড়ুন: ‘ঈশ্বরের আশীর্বাদেই পদক জিতেছি’, নাটকীয়ভাবে ব্রোঞ্জ পেয়ে বললেন হরজিন্দর

Advertisement
Next