একাধিক ভুল হয়েছে, ক্রিকেটে সোনা হাতছাড়া করে স্বীকার হরমনপ্রীতের, কী প্রতিক্রিয়া সৌরভের?

04:29 PM Aug 08, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় জেতা ম্যাচ হাতছাড়া করেছেন হরমনপ্রীত কৌররা। আর তাতেই কমনওয়েলথে প্রথমবার সোনা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের। ম্যাচ শেষে অবশ্য অধিনায়ক হরমনপ্রীত মেনে নিলেন, শেষের কয়েকটি ওভারে একাধিক ভুল করেছেন তাঁরা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

১৬২ রান তাড়া করতে নেমে নিজেদের লক্ষ্যের দিকে ভালভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন হরমনপ্রীতরা। কিন্তু শেষে ২২ রানের মধ্যে পাঁচটি উইকেট খুইয়ে বসে ভারত। শেষমেশ ভারতকে ৯ রানে হারিয়ে সোনা জয়ের হাসি হাসে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচ শেষে হরমনপ্রীত (Harmanpreet Kaur) স্বীকার করেন, খেলা তাঁদের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও নিজেদের ভুলেই সোনা হাতছাড়া হয়েচে। তিনি বলেন, “খেলার উপর আমাদের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ছিল। কিন্তু শেষ কয়েকটা ওভারে একাধিক ভুল হয়েছে। আরও ভালভাবে হিসেব করে খেলা উচিত ছিল। তবে দেশের জন্য পদক জেতায় আমরা খুশি। সব মিলিয়ে আমরা ভাল পারফর্মই করেছি।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: দূরত্ব বাড়ছে বিজেপি-জেডিইউর, বিহার সরকার ভাঙার ছক কষছেন অমিত শাহ?]

আর একটু সতর্ক হয়ে খেললে যে হরমনপ্রীতরাই ফাইনাল ম্যাচ জিতত, তেমনটা মনে করছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও (Sourav Ganguly)। বিসিসিআই সভাপতি ভারতীয় প্রমিলাবাহিনীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেন, “রুপো জয়ের জন্য় ভারতীয় মহিলা দলকে অভিনন্দন। কিন্তু হতাশ হয়েই ওদের বাড়ি ফিরতে হবে। কারণ ম্যাচটা ওদেরই ছিল।” অর্থাৎ ফাইনালে আরও খানিকটা ধরে খেলা যে উচিত ছিল, সেটাই যেন বলে দিতে চাইলেন সৌরভ।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

ফাইনালে ৬৫ রান করেন অধিনায়ক হরমনপ্রীত। তাঁর যোগ্য সঙ্গ দেন জেমিমা রডরিগেজ। ৩৩ রান করেন তিনি। নিজেদের পারফরম্যান্সে খুশি জেমিমা। খেলা শেষে বলে দেন, “কমনওয়েলথে যেভাবে দল খেলেছে, তাতে আমি অত্যন্ত গর্বিত। সোনা হাতছাড়ার হতাশা তো থাকবেই। তবে ভারতীয় পদ তালিকায় বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারায় ভাল লাগছে।”

[আরও পড়ুন: ‘চোর, গরুচোর’, SSKM থেকে বেরনোর সময় অনুব্রতকে লক্ষ্য করে স্লোগান রোগীর আত্মীয়দের]

Advertisement
Next