শূন্য রানে আউট হওয়ায় চড় মেরেছিলেন আইপিএল দলের মালিক! বিস্ফোরক রস টেলর

06:35 PM Aug 13, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলে খেলাকালীন হেনস্তার শিকার হয়েছিলেন। দিনকতক আগে এই অভিযোগ করে ক্রিকেট মহলে আলোড়ন ফেলে দিয়েছিলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। এবার এই একইরকমের বিস্ফোরণ ঘটালেন নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি ব্যাটার রস টেলর। তাঁর অভিযোগ, স্রেফ রান না পাওয়ায় আইপিএল (IPL) দলের মালিক তাঁকে চড় পর্যন্ত মেরেছিলেন।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

নিজের আত্মজীবনী ‘ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইটে’ ইতিমধ্যেই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটে বর্ণবিদ্বেষ নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন রস। যা নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছে সে দেশে। এবার আইপিএল নিয়েও বোমা ফাটালেন তিনি। টেলর (Ross Taylor) জানিয়েছেন, রাজস্থান রয়্যালসের (Rajasthan Royals) হয়ে খেলার সময় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে খেলার সময় তিনি ব্যর্থ হন। তারপরই ওই ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক তাঁকে চড় মেরেছিলেন। তাও একবার নয়, তিন-চারবার। ঠিক কোন ব্যক্তি এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন, সেটা তিনি স্পষ্ট করেননি।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ফের ভারতীয় দলের কোচের হটসিটে ভিভিএস লক্ষ্মণ, জানালেন জয় শাহ]

আত্মজীবনীতে রস বলেন,”সেই ম্যাচটিতে রাজস্থান রয়্যালস মোহালিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের (Kings XI Punjab) বিরুদ্ধে খেলছিল। আমাদের ১৯৫ রান করতে হত। আমি শূন্য রানে আউট হয়ে যাই। ওই ম্যাচটিতে আমরা লক্ষ্যের ধারেকাছে যেতে পারেনি।” এরপরই রস বলেন,”ম্যাচ শেষে ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ এবং টিম ম্যানেজমেন্টের সকলে একটি পানশালায় যাই। সেখানে শেন ওয়ার্নও ছিলেন। তখনই ফ্র্যাঞ্চাইজির এক মালিক এসে আমাকে বলেন, রস শূন্য রান করার জন্য তোমায় লক্ষ লক্ষ টাকা দেওয়া হয় না। এরপরই আমার গালে চড় মারে সে।”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: সাড়ে ৪ ঘণ্টায় জিব্রাল্টার প্রণালী পার বাংলার সাঁতারু তাহরিনার, খুশির হাওয়া উলুবেড়িয়ায়]

আইপিএল পেশাদার লিগ। এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকে প্রচুর টাকা। কোনও দল একটি ম্যাচ হারা মানে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিককে মোটা লোকসানের সম্মুখীন হতে হয়। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তিনি ক্রিকেটারদের গায়ে হাত দেবেন। যদিও রস নিজেই জানিয়েছেন, ওই চড় খুব একটা জোরে তাঁকে মারা হয়নি। সবটা হাসতে হাসতেই হয়েছিল। কিন্তু, কোনও পেশাদার পরিবেশে এমনটা হয় বলে তাঁর মনে হয়নি।

Advertisement
Next