‘শাহিনের সঙ্গে গুরুতর অন্যায় করছে বোর্ড’, বিস্ফোরক অভিযোগ প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

06:46 PM Aug 31, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাঁটুর চোটে এশিয়া কাপ (Asia Cup) থেকে ছিটকে গিয়েছেন পাকিস্তানের সেরা পেস অস্ত্র শাহিন আফ্রিদি (Shaheen Afridi)। চোট সারানোর জন্য আপাতত তাঁকে ইংল্যান্ডে পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু সেদেশের প্রাক্তন ক্রিকেটার মহম্মদ হাফিজ মনে করেন, আফ্রিদির চোট সারানোর জন্য অহেতুক সময় নষ্ট করছে পিসিবি (PCB)। এহেন কাজকে অপরাধের সমান বলে অভিহিত করেছেন হাফিজ।

Advertisement

বেশ কিছুদিন আগে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ফিল্ডিং করতে গিয়ে চোট পেয়েছিলেন শাহিন। তার ফলে এশিয়া কাপ-সহ বেশ কয়েকটি সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছেন তিনি। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও তিনি খেলতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এহেন পরিস্থিতিতে গত ২৮ আগস্ট এশিয়া কাপে ভারত-পাক ম্যাচ দেখতে উপস্থিত ছিলেন তিনি। অবশেষে সোমবার পাক ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জানানো হয়, কিছুদিনের মধ্যেই চোট সারাতে ইংল্যান্ডে যাবেন তিনি। 

[আরও পড়ুন: কেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বাদ পড়লেন পন্থ? জাদেজার উত্তরে হতবাক সাংবাদিকরা]

বুধবার এই প্রসঙ্গে প্রাক্তন পাক অলরাউন্ডার হাফিজ জানিয়েছেন, শাহিনকে নিয়ে অযথা সময় নষ্ট করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। এই গাফিলতি আসলে মারাত্মক অপরাধের সমান। হাফিজ বলেছেন, “আমার মনে হয় শাহিন শুধুমাত্র পাকিস্তানের সম্পদ নয়। সারা পৃথিবীর মানুষ ওর খেলা দেখতে চায়। তাই সঠিকভাবে ওর দেখাশোনা করা দরকার।” হাফিজের মতে, চোট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শাহিনের রিহ্যাব শুরু করে দেওয়া উচিত ছিল পাক বোর্ডের।

Advertising
Advertising

হাফিজ আরও বলেছেন, “শাহিন চোট পাওয়ার পরে অনেকটা সময় কেটে গিয়েছে। এতটা সময় নষ্ট করে আসলে গুরুতর অপরাধ করল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। আমার মনে হয়, এখন পাকিস্তানের ক্রিকেট প্রশাসকরা বুঝতে পেরেছে, সারা পৃথিবী শাহিনের খেলা দেখতে মুখিয়ে থাকে। শুধুমাত্র সেই কথা মাথায় রেখেই এতদিন পরে ইংল্যান্ডে পাঠানো হল শাহিনকে।” আদৌ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শাহিন খেলতে পারবেন কিনা, তা এখনও অজানা। তবে তারকা পেসারের চোট সারানোর ক্ষেত্রে পাক কর্তাদের গাফিলতি রয়েছে, হাফিজের মন্তব্যের পর সেই বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে গেল।

[আরও পড়ুন: ভারত-পাক ম্যাচে পাকিস্তানের জার্সি গায়ে উত্তরপ্রদেশের যুবক, হুমকির মুখে পরিবার]

Advertisement
Next