সিরিজ নির্ধারক যুদ্ধে ভারত, রোহিতের কাঁটা হর্ষল-চাহালের ফর্ম

03:09 PM Sep 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ আপাতত ১-১। রবিবার হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার (India vs Australia) মধ্যে যে জিতবে, সিরিজ তার। তার আগে ভারতীয় টিমকে প্রবল স্বস্তিতে রাখছে অধিনায়ক রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) ফর্ম। নাগপুরে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ভারতের ইতিবাচক দিক শুধু অধিনায়ক রোহিতের গনগনে ফর্ম নয়। অনেক কিছুই আছে। যেমন অক্ষর প্যাটেলের দারুণ বোলিং। জসপ্রীত বুমরার প্রত্যাবর্তন। দীনেশ কার্তিকের ফিনিশারের ভূমিকায় নেমে ম্যাচ শেষ করা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

তবে এ সবের মধ্যে সবচেয়ে বড় প্লাস অবশ্যই অধিনায়ক রোহিত। যিনি নিজের ব্যাটিংয়ে নিজেই চমৎকৃত। আসলে ঝোড়ো অপরাজিত ৪৬ রানের ইনিংসে শুরুতেই বিশাল নব্বই মিটারের একটা ছয় মারেন রোহিত। যা নিয়ে পরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বলে যান, “আমি নিজেও কিছুটা অবাক ওই শটটা নিয়ে। এত দূরে মারব, ভাবতে পারিনি। গত আট-ন’মাস ধরেই এ রকম ব্যাটিং করার চেষ্টা করছি আমি। আসলে ম্যাচ কাটছাঁট হলে ভাবনাচিন্তার বিশেষ সময় থাকে না।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: বিদায়েও উজ্জ্বল চাকদহ এক্সপ্রেস, নতুন প্রজন্মের হাতে ব্যাটন তুলে দিলেন ঝুলন গোস্বামী]

রোহিতকে টিমের বাঁ হাতি স্পিনার অক্ষর প্যাটেলকে নিয়ে মুক্তকচ্ছ হতেও দেখা গেল। অক্ষর দু’ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে শুক্রবারের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার দু’টো উইকেট তুলে নেন। রোহিত বলেও গেলেন যে, অক্ষর থাকায় তাঁর টিমের প্রচুর সুবিধা হয়েছে। কিন্তু সমস্যা হল, অক্ষর বা বুমরার বোলিং যেমন স্বস্তির, তেমনই আবার সিরিজ নির্ধারক ম্যাচের আগে রোহিতের দুশ্চিন্তাও আবার দু’জন বোলার। এঁরা– হর্ষল প্যাটেল এবং যুজবেন্দ্র চাহাল। এই দু’জনের ফর্ম দুর্ভাবনায় রাখবে রোহিতকে।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

হায়দরাবাদে ম্যাচ নিয়ে অস্বস্তিতে রয়েছেন আরও একজন। তিনি হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার প্রধান মহম্মদ আজহারউদ্দিন। দিন কয়েক আগে তৃতীয় টি-টোয়েন্টির টিকিট বিক্রিকে কেন্দ্র করে তুলকালাম বেঁধে যায় হায়দরাবাদে। ছ’জন পদপিষ্ট হন। এক মহিলার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়ে যায়। হায়দরাবাদ পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলাতে লাঠিচার্জ পর্যন্ত করে। সেই সময় হায়দরাবাদ পুলিশের পক্ষ থেকে গণ্ডগোলের পুরো দায় চাপানো হয় হায়দরাবাদ ক্রিকেট সংস্থার উপর। আজহারউদ্দিন বলে দেন, “আমাদের ভুলের জন্য গণ্ডগোল হয়েছে, মানতে পারলাম না। যা হয়েছে, দুর্ভাগ্যজনক। যাঁদের এই পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়েছে, তাঁদের পরিবারের পাশে আমরা আছি। যাঁরা চোট-আঘাত পেয়েছেন, তাঁদের চিকিৎসার সমস্ত খরচ আমাদের।”

[আরও পড়ুন:অনুশীলন ম্যাচে ভারতের অনূর্ধ্ব-২০ দলকে হারাল ইস্টবেঙ্গল, কলকাতা লিগে নামছে রিজার্ভ দল]

Advertisement
Next