দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে সূর্য-কোহলির ব্যাটিং ঝড়, দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে সিরিজ জিতল ভারত

11:21 PM Oct 02, 2022 |
Advertisement

ভারত: ২৩৭-৩ (সূর্যকুমার ৬১, কোহলি ৪৯*, রাহুল ৫৭)
দক্ষিণ আফ্রিকা: ২২১-৩ (মিলার ১০৬*, কুইন্টন ৬৯*)
ভারত ১৬ রানে জয়ী।
সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের (India) রানের পাহাড় টপকাতে পারল না দক্ষিণ আফ্রিকা (South Africa)। তার ফলে  তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ রোহিত শর্মার দল জিতে নিল গুয়াহাটিতেই। নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারত করে তিন উইকেটে ২৩৭ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা থামল ৩ উইকেটে ২২১ রানে।  ডেভিড মিলার (David Miller) (১০৬*) সেঞ্চুরি হাঁকালেন। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করলেন কুইন্টন ডি ককও (৬৯*)। কিন্তু রাতটা যে ছিল ভারতের। তাই দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ভারত শেষ পর্যন্ত জিতে নিল ১৬ রানে। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ইন্দোনেশিয়ার মাঠে পদপিষ্ট হওয়ার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭৪, রিপোর্ট চাইতে পারে FIFA]

বৃষ্টির আশঙ্কা ছিল গুয়াহাটিতে। তার বদলে রানের বৃষ্টি দেখলেন উপস্থিত দর্শকরা। লোকেশ রাহুল ও রোহিত শর্মা ওপেন করতে নেমে ৯৬ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। রোহিত ফেরেন ৪৩ রানে। অন্যদিকে লোকেশ রাহুল ব্যক্তিগত ৫৭ রান করে আউট হন। রোহিতের আঙুলে চোট লেগেছিল ইনিংসের শুরুর দিকে। চোট নিয়েও ব্যাটিং করেন হিটম্যান। যে ব্যাটিংয়ের জন্য বিখ্যাত রোহিত, এদিন হয়তো সেটা তাঁর থেকে পাওয়া যায়নি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যত এগিয়ে আসছে, ওপেনিংয়ে নেমে লোকেশ রাহুল কিন্তু নিজের কাজটা করে যাচ্ছেন। লোকেশ রাহুল যখন আউট হন, সেই সময়ে ভারতের রান ছিল ২ উইকেটে ১০৭। এই জায়গা থেকে সূর্যকুমার যাদব ও বিরাট কোহলি ভারতকে নিয়ে গেলেন রানের পাহাড়ে। কোহলি শেষ পর্যন্ত আর পঞ্চাশ পাননি এদিন। শেষ ওভারে দীনেশ কার্তিক ঝড় তোলেন। ১৮ রান নেন। শেষ ওভারে আর স্ট্রাইক পাননি কোহলি। সেই কারণে পঞ্চাশও হয়নি তাঁর। ৪৯ রানে অপরাজিত থেকে যান কোহলি।

Advertising
Advertising

যদিও দীনেশ কার্তিককে কোহলিই চালিয়ে খেলার লাইসেন্স দেন শেষ ওভারে। তবে ভারত ২৩৭ রানে পৌঁছয় সূর্যকুমার যাদবের ব্যাটিংয়ের জন্য। মাত্র ২২ বলে ৬১ রান করেন সূর্য। ৫টি বাউন্ডারি ও ৫ টি ওভার বাউন্ডারি হাঁকান তিনি। উইকেটের পিছনে এমন কিছু স্কুপ মেরেছেন যা দেখে অনেকেরই জিম্বাবোয়ের প্রাক্তন ব্যাটার ডগলাস মেরিলিয়ারকে মনে পড়তে বাধ্য। কোহলির সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে শেষপর্যন্ত রান আউট হন সূর্যকুমার। কোহলি (Virat Kohli) ও সূর্যকুমার (Surya Kumar Yadav) ১০২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা অত্যন্ত সাধারণ মানের বোলিং করেন এদিন। 

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে প্রথম ওভারে তিন উইকেট নিয়ে প্রোটিয়াদের ব্যাটিং মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছিলেন অর্শদীপ সিং। এদিনও অর্শদীপ সিং শুরুতেই ধাক্কা দেন। খাতা না খুলে অর্শদীপের বলে আউট হন বাভুমা। বাঁ হাতি ভারতীয় পেসারের শিকার রুশো (০)। অক্ষর প্যাটেলের বলে বোকা বনে বোল্ড হন মার্করাম (৩৩)। এরপরে ডেভিড  মিলার ও কুইন্টন ডি’ কক দক্ষিণ আফ্রিকাকে লড়াইয়ে রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু ভারতের রান এতটাই বেশি ছিল যে দুই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান মরিয়া হয়ে লড়লেও শেষ পর্যন্ত হার মানতে হয়। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ভারত জিতল ২-০-এ। 

[আরও পড়ুন: কাতার বিশ্বকাপে বিশেষ চমক, প্রদর্শিত হবে ‘হ্যান্ড অফ গড’ জার্সি]

 

Advertisement
Next