১০ নভেম্বর কলকাতায় আসছেন মহামেডান কোচ, আই লিগের প্রস্তুতি দিঘাতে সারবেন ফুটবলাররা

02:20 PM Oct 30, 2020 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: নতুন স্প্যানিশ কোচ হোসে হেভিয়ার পরামর্শমতো আই লিগের প্রস্তুতির জন্য দিঘা যাবে মহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব (Mohammedan Sporting Club)।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

আই লিগের প্রস্তুতির জন্য ক্লাবের প্র্যাকটিস শুরু হওয়ার ভাবনা ১৬ নভেম্বর থেকে। স্পেন থেকে হেভিয়া জানিয়েছেন, প্র্যাকটিস শুরুর আগে ক্লাবের কর্মকর্তা এবং কোচিং স্টাফদের সঙ্গে আলোচনার জন্য ১০ নভেম্বর কলকাতায় চলে আসছেন তিনি। পাঁচদিন সবার সঙ্গে আলাচনার পর নিজেদের মাঠে প্র্যাকটিসে ডাকবেন ফুটবলারদের।

[আরও পড়ুন: মাঝপথে অধিনায়কত্ব ছাড়লে কেন? চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে হারের পর কার্তিককে তুলোধোনা গম্ভীরের]

হেভিয়ার আপাতত যা পরিকল্পনা, তাতে নভেম্বর মাসটা নিজেদের মাঠেই প্র্যাকটিস করবে মহামেডান। আই লিগকে লক্ষ্য করে তারপরেই আবাসিক শিবির করার পরিকল্পনা। আই লিগের প্রস্তুতির জন্য এখনও পর্যন্ত ফেডারেশনের তরফে আই লিগের ক্লাবগুলির কাছে বায়ো-বাবলের ব্যাপারে চূড়ান্ত নিয়ম কানুন এখনও কিছু আসেনি।

Advertising
Advertising

হেভিয়া ধরেই নিয়েছেন, বায়ো-বাবলে ঢোকার আগে বেশ কিছুদিন প্রস্তুতির সময় পাবেন। ক্লাবের সঙ্গে চুক্তির সময়েই তিনি জানিয়েছিলেন, আই লিগের প্রস্তুতির জন্য আবাসিক শিবির করতে চান। কোচ শুরুতে না জানানোয় কর্তারা ভেবেছিলেন হয়তো অধিক উচ্চতায় আবাসিক শিবির করতে চান হেভিয়া। সেইমতো দার্জিলিংয়ে আবাসিক শিবির করার যাবতীয় ব্যবস্থা করে রেখা হয়েছিল। কিন্তু দু’দিন আগেই স্পেন থেকে কোচ বার্তা পাঠিয়েছেন, উচ্চতায় নয়। বালিতে ট্রেনিং করাতে চান। সঙ্গে সঙ্গে দার্জিলিংয়ের বদলে দীঘার সমুদ্র সৈকতে আবাসিক শিবিরের যাবতীয় ব্যবস্থা করে ফেলা হয়েছে। ঠিক হয়েছে, ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে পুরো দল নিয়ে দীঘা চলে যাবেন কোচ। সেখান থেকে সরাসরি আই লিগের বায়ো-বাবলে যোগ দেবে দল।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: মর্গ্যানের নেতৃত্বের জোড়া ভুলের জন্য চেন্নাইয়ের কাছে হারল কেকেআর, তোপ প্রজ্ঞান ওঝার]

এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে শুরু হবে আই লিগ (I League)। তাও সেটা ৬-৭ জানুয়ারির আগে শুরু হওয়ার সম্ভাবনা কম। সেক্ষেত্রে তার ১৪ দিন আগে বায়ো-বাবলে ঢুকতে হবে কোচ, ফুটবলার এবং দলের সঙ্গে থাকা কর্মকর্তাদের। জানুয়ারিতে আই লিগ শুরু হলে চলবে মার্চ পর্যন্ত। ফুটবল সচিব তথা টিডি দীপেন্দু বিশ্বাসের আই লিগের জন্য টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পদে থাকা সম্ভব হবে না। আই লিগের নিয়ম অনুযায়ী দলের টিডি হতে হলে কোচিং লাইসেন্স থাকতে হবে। আর টানা মার্চ পর্যন্ত বায়ো-বাবলে থাকতে হবে। টিডি হওয়ার জন্য দীপেন্দুর কোচিং লাইসেন্স নেই। তাছাড়া মার্চ পর্যন্ত বায়ো-বাবলে থাকতে পারবেন না তিনি। আই লিগের মূলপর্বে দীপেন্দুর ভূমিকা হবে শুধুই ফুটবল সচিবের।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next