Advertisement

জয়দীপকে পদত্যাগ ফেরানোর অনুরোধ জানিয়ে চিঠি IFA সভাপতির, কী সিদ্ধান্ত সচিবের?

02:28 PM Apr 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: কাহানি মে টুইস্ট। ফলে বেশ কিছুদিন ধরে চলা সমস্যা মিটে যাওয়ার পথে। চেয়ারম্যান সুব্রত দত্ত যে আইএফএ সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায়কে (Joydeep Mukherjee) চিঠি দিয়ে পদত্যাগপত্র তুলে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করবেন, এমনটা প্রত্যাশিতই ছিল। কিন্তু শুক্রবার হঠাৎই পদত্যাগী সচিবকে চিঠি দিয়ে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার অনুরোধ করলেন খোদ আইএফএ সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়। মূলত যাঁর সঙ্গে সমস্যার জন্যই পদত্যাগ করেছিলেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। এবার সেই সভাপতিই যখন চিঠি দিয়ে জয়দীপকে ইস্তফাপত্র তুলে নেওয়ার অনুরোধ করলেন, তখন সমস্যাটা মিটে যাওয়ার পথেই বলা যায়। হয়তো গভর্নিং বডির মিটিং ডেকে সবার সামনেই এতদিন ধরে বয়ে চলা সমস্যার যবনিকা পতন হবে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

আই লিগ চলাকালীন সভাপতি এবং চেয়ারম্যানের কাছে পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়ে সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, আই লিগ (I League) শেষ হওয়ার পরেই সচিবের পদ থেকে সরে যাবেন। স্বাভাবিকভাবেই আই লিগ শেষ হতেই ২৭ মার্চের পর থেকে আইএফএতে আসা বন্ধ করে দেন জয়দীপ। তার ফলে নানা সমস্যা শুরু হয়ে যায় আইএফএতে। সমস্যার বেশিটাই আর্থিক সংক্রান্ত। আই লিগের বিভিন্ন লোকের পেমেন্ট মেটানো থেকে আইএফএ’র দৈনন্দিন কাজকর্মেরও ক্ষতি হতে থাকে। সচিবের সঙ্গে পদত্যাগ করেন তিন-সহ সভাপতিও। সচিব, সহ-সভাপতিদের বাদ দিয়ে মসৃণভাবে আইএফএ চালানোটাই মুশকিল হয়ে পড়ে। বিভিন্ন ক্লাব, সিআরএ থেকে পদত্যাগপত্র তুলে নেওয়ার জন্য জয়দীপ মুখোপাধ্যায়কে চিঠি দিলেও, চুপ করে থাকেন আইএফএ সচিব। তাঁর বক্তব্য পরিষ্কার। তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছিলেন আইএফএ’র (IFA) চেয়ারম্যান সুব্রত দত্ত এবং সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে। তাঁরা দু’জনেই চুপ করে থাকা মানে, জয়দীপের পদত্যাগ মেনে নিয়েছেন তাঁরা। তাই বিভিন্ন জায়গা থেকে পদত্যাগ তুলে নেওয়ার আবেদন এলেও সিদ্ধান্ত বদলাননি। বরফটা গলতে শুরু করে বৃহস্পতিবার সকালে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের বারপুজোর অনুষ্ঠানে। সেখানেই সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা হয়ে যায় জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের। কথা হয় দু’জনের মধ্যে। তারপরেই অজিত বন্দ্যোপাধ্যায় সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলেন, “জয়দীপ আইএফএ থেকে চলে যাবে, এটা আমিও চাই না। ফুটবলের ভালর জন্য যা যা করতে হবে, নিশ্চয়ই আমি করব।”

[আরও পড়ুন: বাবার টাকা অপচয় করছেন! সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের কী জবাব দিলেন শচীনকন্যা সারা?]

এরপরেই বিকেলে জয়দীপ মুখোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য অনুরোধ করেন তিনি। অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের আগেই জয়দীপ মুখোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে পদত্যাগ তুলে নেওয়ার অনুরোধ করেন সুব্রত দত্ত। তিনি চিঠিতে জয়দীপকে লেখেন, “আইএফএ এখন খুবই ভাল ভাবে চলছে। এই সময় আপনি চলে গেলে ক্ষতি হবে আইএফএর। বাংলার ফুটবলের স্বার্থে আপনার পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফের বিবেচনা করা উচিত।”

চেয়ারম্যান এবং সভাপতিই শুধু নয়। সিআরএ, বিভিন্ন ক্লাব এবং বিভিন্ন জেলার থেকে পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেওয়ার চিঠি পাওয়ার পর এখন কি সিদ্ধান্ত নেবেন জয়দীপ? চেয়ারম্যান এবং সভাপতির চিঠি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নিতেই পারেন। কিন্তু দ্রুততার সঙ্গে জয়দীপ সেই পথে হাঁটলে মনে হতে পারে, পদত্যাগ তুলে নেওয়ার জন্য স্রেফ চেয়ারম্যান আর সভাপতির চিঠির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। ফলে মনে হয় না, গভর্নিং বডির সদস্যদের সামনে ছাড়া পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেবেন। বরং গভর্নিং বডির সদস্যদের সামনে চেয়ারম্যান, সভাবপতির অনুরোধের চিঠি-সহ বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরবেন। তারপর গভর্নিং বডির সদস্যরা যা মতামত দেবেন, সেটাই সিদ্ধান্ত নেবেন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: চাহারের দাপটে ধরাশায়ী পাঞ্জাব, আইপিএল মরশুমের প্রথম জয় পেল ধোনির চেন্নাই]

আর বলাই বাহুল্য, গভর্নিং বডির কোনও সদস্যই চাইছেন না, জয়দীপ মুখোপাধ্যায় আইএফএ ছেড়ে চলে যান। ফলে গভর্নিং বডির মিটিং ডেকে জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেওয়া এখন স্রেফ সময়ের অপেক্ষা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next