Advertisement

‘কেন ওয়েস্টবেঙ্গলে বসে ইস্টবেঙ্গলকে সমর্থন?’ক্লাবের দুঃসময়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কে Tathagata Roy

05:28 PM Jul 26, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পশ্চিমবাংলায় বসে ইস্টবেঙ্গলকে (East Bengal) সমর্থন কেন? বছর দুই আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই প্রশ্ন তুলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তথাগত রায়। নিন্দার ঝড় উঠতেই নিজের বক্তব্য নিয়ে সাফাইও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আজ, সোমবার ফের তাঁর ভারচুয়াল মাধ্যমে উঠে এল সেই একই প্রশ্ন। লাল-হলুদ ক্লাবের টালমাটাল অবস্থার মধ্যেই এবার মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল বোঝাতে চাইলেন, বাংলায় বসে ইস্টবেঙ্গলের জন্য গলা ফাটানোর কোনও মানেই হয় না!

Advertisement

ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ পূর্তির দিন কয়েক আগে ময়দানের পরিবেশকে রীতিমতো বিষাক্ত করে তুলেছিল তথাগত রায়ের একটি টুইট। ‘পশ্চিমবঙ্গে বসে ইস্টবেঙ্গলকে সমর্থন করছেন কেন?’ এমন প্রশ্ন তুলে আবেগতাড়িত ভক্তদের গায়ে জ্বালা ধরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। যা নিয়ে বিতর্কের ঝড় ওঠে। এবারও যখন ইনভেস্টরদের সঙ্গে ক্লাবের চুক্তি নিয়ে টানাপোড়েনে ইস্টবেঙ্গলের ফুটবল ভবিষ্যৎ রীতিমতো সংশয়ে, ঠিক তখনই ফের টুইটারে খোঁচা দিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: Tokyo Olympics: ভারোত্তোলনে মীরাবাই চানুর রুপো বদলে যেতে পারে সোনায়]

তথাগতর (Tathagata Roy) টুইট, “ইস্টবেঙ্গল ক্লাব নিয়ে যাঁরা উচ্ছ্বাস করেন (অল্পবয়সে আমিও করতাম, এখন সমর্থন করি) তাঁদের একটু ভেবে দেখতে অনুরোধ করি। কেন আমরা ওয়েস্ট বেঙ্গলে বসে ইস্টবেঙ্গলকে সমর্থন করি? করি, কারণ আমাদের বাড়ি ছিল ইস্টবেঙ্গলে। সে বাড়িতে কি আমরা যেতে পারি? কেন পারি না? একটু ভাবুন।” স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এমন মন্তব্যে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন লাল-হলুদ সমর্থকরা। শুধু ফ্যানরাই নন, ফুটবল ক্লাবকে সমর্থনের ক্ষেত্রে যেভাবে তিনি দুই বাংলার ব্যাখ্যা দিয়েছেন, সে মনোভাবও পছন্দ হয়নি নেটিজেনদের একাংশের। তবে ভাঙলেও মচকাচ্ছেন না তিনি।

এরপর আরও একটি টুইট করেন তিনি। লেখেন, “এই টুইটে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ৩৫টা রিপ্লাই, দ্বিগুণ রিটুইট ও দশগুণের বেশি লাইক পড়েছে। পরম সন্তোষের বিষয় যে আজকের যুবশক্তি এটা নিয়ে ভাবে। যারা উত্তর দিয়েছে তারা অনেকেই ইতর ভাষা ব্যবহার করেছে, যার মধ্যে কিছু ক্লাবের বাইরে অন্যকিছু ভাবতেই পারছে না, আর বাকিরা সংখ্যালঘু প্রেমে ভাসছে।” তথাগতর এই মন্তব্যে সমর্থকদের পালটা প্রশ্ন, এমন সংকটের দিন যেখানে ঐতিহ্যবাহী একটা ক্লাবের পাশে দাঁড়ানো উচিত, অন্তত সমস্যা যাতে মিটে যায়, সেই প্রার্থনা করা উচিত, সেখানে একজন প্রবীণ রাজনীতিবিদ হয়ে কীভাবে তিনি এমন মন্তব্য করেন? সব মিলিয়ে আরও একবার ফুটবলপ্রেমীদের বিরাগভাজন হলেন তথাগত রায়।

[আরও পড়ুন: Viral Video: ধোনিকে সামনে পেয়েই জড়িয়ে ধরলেন Ranveer Singh, আড্ডা দিতে বসলেন পায়ের কাছে!]

Advertisement
Next