Advertisement

সাফ কাপে টিকে থাকতে মরণবাঁচন ম্যাচে নেপালকে হারাতেই হবে সুনীলদের

03:53 PM Oct 10, 2021 |

স্টাফ রিপোর্টার: একদিকে পাহাড় প্রমাণ চাপ নিয়ে খেলতে নামবে একটা দল। অন্যদিকে প্রথম দু’টো ম্যাচ জিতে ফাইনালে ওঠার পথ প্রায় পরিষ্কার করে নিয়েছে আর একটা দল। বলা চলে দুই বিপরীত মেরুতে দাঁড়িয়ে দুটি দেশ। প্রথম দলটি ভারত (India) হলে দ্বিতীয় দলটি হল নেপাল (Nepal)। রবিবার পরস্পর সাফ কাপে মুখোমুখি হতে চলেছে।

Advertisement

নীল জার্সিধারীরা সাফ কাপে কখনও এমন বাজে রেজাল্টের মুখোমুখি হয়নি। পরপর দু’টো ম্যাচে ড্র তাও আবার বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মতো দলের সঙ্গে। শুধু ড্র নয়, গোল করেছে মাত্র একটা। তাই বোঝাই যাচ্ছে, ভারতীয় দলের আক্রমণভাগ মোটেই সুবিধে করতে পারছে না। সাফ কাপে তাই ভারতকে টিঁকে থাকতে হলে এই ম্যাচে জিততেই হবে। নাহলে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নেবে ইগর স্টিমাচ বাহিনী। সুনীলরা প্রচণ্ড চাপ নিয়ে খেলতে নামবেন। জিততে গেলে ব্র্যান্ডন ফার্নান্ডেজ, উদান্ত সিং, লিস্টন কোলাসো, সুনীলদের বাড়তি পরিশ্রম করতেই হবে। আসলে ফরোয়ার্ড লাইনে বল খুব দ্রুত দেওয়া নেওয়া করে আক্রমণ হচ্ছে না। তাই সুনীলরা প্রতিপক্ষের রক্ষণে গিয়ে ধরা পড়ে যাচ্ছেন।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: টি-২০ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের নেট বোলার হিসাবে সুযোগ পেলেন আইপিএলে নজরকাড়া পেসার]

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভারতের খেলায় যেভাবে গতি মন্থরতা চোখে পড়েছে তার প্রতিচ্ছবি যদি এই ম্যাচে ভেসে উঠলে ভারতের সমস‌্যা বাড়বে। সেই তুলনায় নেপাল কিন্তু শুরুটা ভালই করেছে। পরপর দু’টো ম্যাচ জিতে তারা বলতে গেলে ফাইনালে চলেই গিয়েছে। এখন তারা প্রতিশোধ নিতে মরিয়া। সেপ্টেম্বরে দু’দেশের মধ্যে একটা প্রীতি ম্যাচ হয়েছিল। সেই ম্যাচে ভারত জেতে। তাই নেপাল চাইবে সেই হারের বদলা নিতে। ভারতকে হারাতে পারলে প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথ পরিষ্কার হবে। কারণ, আজ বিপাকে পড়লেও কে না জানে ভারতকে মোকাবিলা করা যত এড়ানো যায় ততই মঙ্গল। তাই নেপাল চাইবে কোনওমতে না হারতে। প্রতি আক্রমণের উপর ভর করে তারা এগোবে। দ্রুত আক্রমণে উঠে এলে ভারতের দুর্বল রক্ষণ হোঁচট খেতে বাধ্য।

দু’টি দলই প্রথম একাদশ পাচ্ছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চিংলেনসানা সিং, প্রীতম কোটাল ও মনবীর সিং খেলেননি। ধরে নেওয়া যায় নেপালের বিপক্ষে সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি নিশ্চয় স্টিমাচ করবেন না। ভারত যেমন আজ তাকিয়ে থাকবে সুনীলের দিকে। অন্যদিকে নেপাল অনেকটা নির্ভরশীল অঞ্জন বিস্তার উপর। ফাইনাল থার্ডে অঞ্জন প্রচণ্ড সুযোগ সন্ধানী। দু’দেশের লড়াইয়ে ভারত এগিয়ে। ২১ বারের মধ্যে নীল জার্সিধারীরা ১৪ বার জিতেছে। নেপাল শেষবার ভারতকে হারিয়ে ছিল এই সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। ২০১৩ সালে গ্রুপ লিগের খেলায়। নেপালের বিপক্ষে সুনীলের ১০টা ম্যাচে ছ’টা গোল আছে। ভারত ফের নেপালকে হারিয়ে সাফে ঘুরে দাঁড়াতে পারে কি না সেটাই এখন দেখার।

[আরও পড়ুন: প্রথমবার টি-২০ বিশ্বকাপে ব্যবহৃত হবে DRS, বদলাচ্ছে নিয়মও]

Advertisement
Next