Advertisement

ইপিএলে মানবিকতার নজির, খেলা থামিয়ে অসুস্থ ভক্তকে হাসপাতালে পাঠালেন ফুটবলাররা

12:05 PM Oct 18, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবাসরীয় সেন্ট জেমস পার্ক। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ( English Premiere League) মুখোমুখি নিউক্যাসল ইউনাইটেড ও টটেনহ্যাম। হাড্ডাহাড্ডি একটা ফুটবল ম্যাচই চলছিল। স্টেডিয়াম জুড়ে তখন সমর্থকরাও বিভক্ত। কেউ চিৎকার করছেন, ‘গো টটেনহ্যাম’। আবার বাকি গ্যালারি থেকে শোনা যাচ্ছে ‘কাম অন নিউক্যাসল’ ‘কাম অন নিউক্যাসল।’ প্রথমার্ধের ঠিক একচল্লিশ মিনিট। সেন্ট জেমস পার্কে আর কোনও উল্লাসের চিৎকার তখন শোনা যাচ্ছিল না। গ্যালারি জুড়ে তখন শুধুই বয়ে যাচ্ছে টেনশনের চোরাস্রোত। ফুটবলারদের মুখেও চিন্তার ছাপ।

Advertisement

হঠাৎ উৎসবের আবহের মাঝে এমন শ্মশানের নিস্তব্ধতা কেন? কারণ, এক নিউক্যাসল (Newcastle United) ভক্ত। যিনি প্রিয় ক্লাবের ম্যাচ দেখতে এসে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেই ভক্তকে জীবনযুদ্ধে বাঁচাতেই এগিয়ে এলেন দু’দলের ফুটবলাররা। যাঁরা খেলা থামিয়ে রেফারিকে বলেন যত দ্রুত সম্ভব সেই অসুস্থ নিউক্যাসল ভক্তকে যাতে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। নিজের দীর্ঘ ইতিহাসে ফুটবল অনেক কিছুই তো দেখেছে। দেখেছে বাবা ও ছেলে একই দলের হয়ে খেলছে। দেখেছে গোলকিপার গোল করে দলকে জেতাচ্ছেন। তবে দর্শক অসুস্থ হওয়ায় ফুটবলারদের ম্যাচ বন্ধ করে দেওয়া। 

[আরও পড়ুন: টি-২০ বিশ্বকাপের আগে ভারতীয় দলকে তাতাতে বিশেষ বার্তা সুরেশ রায়নার]

না, এমন ঘটনার সাক্ষী আগে কোনওদিন থাকেনি ফুটবল। পুরোদমে তখন ম্যাচ চলছে। তবে হঠাৎই রেফারি আন্দ্রে ম্যারিনারকে খেলা বন্ধ করতে বলেন টটেনহ্যামের (Tottenham) তারকা উইং ব্যাক সের্জিও রেগুইলন। স্প্যানিশ তারকা রেফারিকে জানান গ্যালারির ইস্ট স্ট্যান্ডে উপস্থিত এক নিউক্যাসল ভক্ত অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ফলে খেলা স্থগিত রেখে সেই ভক্তকে যাতে দ্রুত হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বাকি ফুটবলাররাও রেগুইলনের মতো খেলা বন্ধ করতে বলেন। নিউক্যাসল ফুটবলাররা আবার নিজেদের টিম-ডক্টরকে গিয়ে বলেন একবার গিয়ে সেই ভক্তকে দেখে আসতে। নিউক্যাসলের টিম-ডক্টর পল ক্যাটারসন ডেফিব্রিলেটর নিয়ে ছুটে যান সোজা গ্যালারিতে।

রেফারিও ফুটবলারদের ড্রেসিংরুমে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেন। ম্যাচ বন্ধ থাকে বেশ কিছুক্ষণ। অ্যাম্বুল্যান্স করে অসুস্থ সেই নিউক্যাসল ভক্তকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ভক্তটি স্ট্রেচারে মাঠ ছাড়ার সময়ে গ্যালারির সবাই সমবেত ভাবে ‘গেট ওয়েল সুন’ বলে চিৎকার করেন। ফুটবলারদের কাছে খবর পৌঁছয় সেই অসুস্থ ভক্তকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দু’দলই তারপর মাঠে নামে। ফুটবলাররা হাল্কা ওয়ার্ম আপ করেন। স্থগিত হওয়া ম্যাচ আবার শুরু হয়।

যা খবর পাওয়া যাচ্ছে অসুস্থ সেই ভক্ত হৃদরোগে আক্রান্ত হলেও আপাতত নাকি স্থিতিশীল। নিউক্যাসলের টুইটার হ্যান্ডল থেকে আবার পোস্ট করা হয়, ‘আজ ম্যাচ দেখতে এসে ক্লাবের এক ভক্ত অসুস্থ হয়ে পড়েন। আমরা প্রার্থনা করছি যাতে দ্রুত সেই ভক্ত সুস্থ হয়ে ওঠেন।’ গোটা ঘটনাই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলল ঝড়। সবার মনে পড়ে গেল অভিশপ্ত সেই ১২ জুনের কথা। ইউরো ম্যাচ চলাকালীন যে দিন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ান এরিকসন। তবে সেই আতঙ্কিত পার্কেন স্টেডিয়ামে আবার প্রাণ ফিরিয়েছিল ফুটবল। এ দিনও উদ্বিগ্ন সেন্ট জেমস পার্ককে আত্মবিশ্বাস জোগাল সেই ফুটবলই। প্রমাণিত হল ফুটবল পারে মনুষ্যত্বের প্রতীক হয়ে উঠতে। এমনি এমনি কী আর ফুটবলকে ‘দ্য বিউটিফুল গেম’ বলে! 

[আরও পড়ুন: জাতিবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগে গ্রেপ্তার প্রাক্তন ক্রিকেটার যুবরাজ সিং!]

Advertisement
Next