Advertisement

ডার্বির আগে লাল-হলুদ নিয়ে ভাবব, অকপট এটিকে মোহনবাগান কোচ হাবাস

03:19 PM Nov 19, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal) যেখানে গোয়াতে এসে শুরু করেছে আইএসএলের (ISL) প্রস্তুতি, এটিকে মোহনবাগানের (ATK Mohun Bagan) প্রস্তুতি সেখানে সারা বছর ধরেই। যে কারণে, লাল-হলুদ কোচ ম্যানুয়েল ডিয়াজ আইএসএলের প্রস্তুতির জন্য প্র্যাকটিস ম্যাচ খেললেও, হাবাস (Antonio Lopez Habas) কোনও প্র্যাকটিস ম্যাচও খেলছেন না। এমনকী, এসসি ইস্টবেঙ্গল খেলছে, আর এটিকে মোহনবাগান খেলছে না, এই প্রসঙ্গ নিয়েও আলোচনা করতে রাজি নন এটিকে মোহনবাগান কোচ।

Advertisement

প্রশ্ন : অন্য দলগুলির মতো আইএসএল শুরুর আগে কোনও প্র্যাকটিস ম্যাচ খেললেন না তো?
হাবাস : প্র্যাকটিস ম্যাচ না খেলার জন্য আমার কোনও আফশোস নেই। প্রতিপক্ষ দলের বিরুদ্ধে এই সময় ম্যাচ খেলার থেকে, নিজের দলকে ঠিক করাই বেশি জরুরি। প্রথম ম্যাচের আগেই দলের যাবতীয় ফাঁকফোকর ঠিক করে নিতে হবে।
প্রশ্ন : এসসি ইস্টবেঙ্গল কিন্তু প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলে এবার দারুণ ভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে?
হাবাস : দেখুন, নিজের দল ছাড়া অন্য দল কী করছে, তা নিয়ে আমার বিন্দুমাত্র আগ্রহ নেই। এসসি ইস্টবেঙ্গলের ব্যাপারে একমাত্র আগ্রহ, ওদের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলা। সেটাও অনেক দেরি আছে। তাই এসসি ইস্টবেঙ্গল কী করছে, তা নিয়ে কোনওরকম মন্তব্য করতে চাই না।

[আরও পড়ুন: বিশ্রামেই বিরাট, বাড়ছে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের অধিনায়কত্ব নিয়ে ধোঁয়াশা]

প্রশ্ন : এএফসির শেষ ম্যাচে এফসি নাসাফের কাছে হারটা কিন্তু যথেষ্ট হতাশজনক ছিল?
হাবাস : আমার জীবনের দর্শন হল, পিছনে না তাকানো। সব সময় সামনের দিকে তাকাতে হবে। তাই আগে কোন ম্যাচে কী হয়েছে, সেদিকে না তাকিয়ে সামনের আইএসএলের ম্যাচ নিয়ে ভাবছি।

প্রশ্ন : গত মরশুমে সুসাইরাজ, প্রবীরের মতো বেশ কিছু ফুটবলার চোটের জন্য খেলতে পারেননি। এবার নিশ্চয়ই সব কিছু ঠিকঠাক?
হাবাস : আশা করছি, এবার সব ফুটবলারকেই এবার চোট ছাড়া মাঠে পাব। এই ফুটবলাররা দলের জন্য ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন : এবারের আইএসএল শুরুর হওয়ার আগে আপনার ঠিক লক্ষ্য কী?
হাবাস : অবশ্যই এবারও চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। কোনও ম্যাচ হারতে চাই না আমি।তবে প্রতিটি প্রতিপক্ষ দলকে ভীষণ ভাবে গুরুত্ব দিই, সম্মান করি। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়া অন্য কিছু ভাবতেই পারি না।

প্রশ্ন : আপনি সব সময় অ্যাটাক আর ডিফেন্সের মধ্যে ব্যালান্সড ফুটবল খেলতে চান। কিন্তু সন্দেশ না থাকায়, এএফসির ম্যাচে দেখা গিয়েছে, ডিফেন্স নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। এখনও কি সেই সমস্যা মিটে গিয়েছে?
হাবাস : আমার দলে যে ফুটবলাররা প্রথম একাদশে মাঠে নামে, তারা সেরা ফুটবলার বলেই মাঠে নামে। আমি সব সময় ব্যালান্সড ফুটবলেই বিশ্বাসী। যখন দরকার পড়বে, আমার দল আক্রমণে যাবে। যখন দরকার পড়বে, আমার দল ডিফেন্স করবে। আলাদা করে ডিফেন্স নিয়ে ভাবার কিছু নেই। তিরি, শুভাশিস, প্রীতম, দীপক এমনকি ম্যাকহিউগের মতো ফুটবলার ডিফেন্সে আছে। চিন্তার কিছু নেই।

প্রশ্ন : আইএসএল শুরুর আগে প্রস্তুতির জন্য যতটা সময় পেলেন, তা কি যথেষ্ট?
হাবাস : দেখুন, আপনি যতটা সময়ই পান না কেন, সব কোচই চাইবে প্রস্তুতির জন্য আরও বেশি সময়। তবে সাম্প্রতিক পরিস্থিতির কথা ভেবে এবারের আইএসএলের প্রস্তুতির জন্য যতটা সময় পেয়েছি, আমি খুশি।

প্রশ্ন : এই মরশুমে দু’জন নতুন বিদেশি ফুটবলার দলে যোগ দিয়েছেন। একজন হুগো বুমোস। আরেকজন কাউকো। এদের পেয়ে এটিকে মোহনবাগান কতটা শক্তিশালী ?
হাবাস : এরা দু’জনেই খুবই ভাল ফুটবলার। এদের যোগদানে আমাদের দল অবশ্যই ভাল হয়েছে।

[আরও পড়ুন: T-20 World Cup: ব্যাটে ঝড় তুললেন মিচেল-নিশাম, ইংল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে নিউজিল্যান্ড]

Advertisement
Next