Advertisement

আজ জামশেদপুরের সামনে সবুজ-মেরুন, মুম্বই ম্যাচের রেফারিং নিয়ে এখনও চটে হাবাস

03:46 PM Dec 06, 2021 |

দুলাল দে: সেই জামশেদপুর এফসি। যাদের বিরুদ্ধে ম্যাচটা ড্র রাখতে সক্ষম হয়েছিল দুর্বল এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal)। কিন্তু হাবাসের এটিকে মোহনবাগান তো আর সামান্য ড্রতে খুশি হওয়ার দল নয়। কিন্তু আগের ম্যাচে মুম্বই সিটি এফসির বিরুদ্ধে সেই হতাশাজনক ফল দেখার পর প্রতিপক্ষ জামশেদপুর এফসিকে নিয়েও এখন প্রবল চিন্তায় কোচ অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। যে কারণে, দলের ফুটবলারদের প্রতি কড়া নির্দেশ, কোনওভাবেই টিম হোটেলে মুম্বই সিটি এফসি ম্যাচ নিয়ে আলোচনা করা যাবে না।

Advertisement

কিন্তু তা বলে হাবাসের দল পাঁচ গোল খাবে! যেখানে ডিফেন্সিভ সিস্টেম দারুণভাবে সাজানোর জন্যই বিখ্যাত তিনি। সোমবার জামশেদপুর এফসির (Jamshedpur FC) বিরুদ্ধে খেলার আগে মুম্বই সিটি এফসি নিয়ে কিছু বলবেন না, বলবেন না করেও শেষ পর্যন্ত সেই বললেন। “ম্যাচটা একটা দুর্ঘটনা বলতে পারেন। আর দুর্ঘটনা রোজ রোজ হয় না।’’ সত্যিই কি দুর্ঘটনা? “দুর্ঘটনা ছাড়া কি?” হাবাস পালটা প্রশ্ন করে যুক্তি দিতে লাগলেন, “দ্বিতীয় গোলটা হ্যান্ডবল। তৃতীয় গোলটা ফাউল, আর চতুর্থ গোলটা তো অফসাইড। রেফারি এরকম সিদ্ধান্ত নিলে ম্যাচটা জিতব কী করে? দীপকের লাল কার্ডটাও কি সঠিক ছিল? তবুও বলছি, মুম্বই ম্যাচ আর মনে করতে চাই না।”

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে কোহলির লক্ষ্য এবার দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ]

ডার্বি-সহ পর পর দুটো ম্যাচ জিতে, মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে পুরো দলটা যেভাবে মুখ থুবড়ে পড়ল, পরের ম্যাচে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে কী হবে? হাবাস বললেন, “আমার খেলার স্টাইলের একটা দর্শন আছে। আমি সব সময় ম্যাচ ধরে ধরে এগোই। তাই আগের তিনটে ম্যাচে কি হয়েছে, মনে রাখছি না। মাথায় শুধুই ঘুরছে জামশেদপুর এফসি।”

কোনও ম্যাচে এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan) খেলছে, তিন ডিফেন্ডারে। কোনও ম্যাচে আবার চার ডিফেন্ডারে। যেমন হাবাস স্বীকার করলেন, “পরিস্থিতি বুঝে আমাকে খেলার ফর্মেশন পরিবর্তন করতে হয়। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধেই তো আমি দ্বিতীয়ার্ধে চার ডিফেন্ডারে চলে গিয়েছিলাম।” তাহলে জামশেদপুরের বিরুদ্ধেও কি চার ডিফেন্ডার? এবার হাবাস একদম ডিফেন্সিভ। “কোন ফর্মেশনে খেলব, সেটা নিয়ে এখনই কিছু বলব না। তিনজন কিংবা চারজন ডিফেন্ডার কেন। পাঁচজন ডিফেন্ডার নিয়েও প্র‌্যাকটিস হয়েছে আমাদের। তবে ম্যাচটা জিততেই হবে।’’

[আরও পড়ুন: IPL 2022: আইপিএলের নতুন মরশুমে দুই মুম্বইকরকে টার্গেট করতে পারে কেকেআর]

সোমবার জামশেদপুর ম্যাচের আগে সবুজ-মেরুন শিবিরের জন্য একটাই ভাল খবর, চোট কাটিয়ে দলে ফিরছেন, ডিফেন্ডার তিরি। অন্তত ২০ জনের দলে তো তো তিনি থাকবেনই। প্রতিপক্ষ জামশেপুর নিয়ে কিছু বলতে না চাইলেও হাবাস আলাদা করে উল্লেখ করলেন, ভালকিসের খেলা। “শুধু ভালকিস নয়। ওদের ভারতীয় ফুটবলাররাও দারুণ। তবে ম্যাচটা আমাদের জিততেই হবে।”

আজ আইএসএলে
জামশেদপুর এফসি বনাম এটিকে মোহনবাগান
সন্ধে ৭.৩০

Advertisement
Next