Advertisement

মহিলাদের এশিয়ান কাপে চমক, ভারতের মাটিতে প্রথমবার দেখা যাবে VAR-এর প্রয়োগ

09:52 PM Jan 08, 2022 |

স্টাফ রিপোর্টার: এএফসি এশিয়ান কাপে (AFC Asian Cup) ইতিহাস রচিত হতে চলেছে। ভারতে এই প্রথম ভার বা ভিডিও সহকারী রেফারি (VAR) ফুটবল ম্যাচে দেখা যাবে। মেয়েদের এশিয়ান কাপে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে এই পদ্ধতি চালু করা হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

২০ জানুয়ারি থেকে প্রতিযোগিতা শুরু। চলবে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তিনটে ভেন্যু পুণে, মুম্বই ও নভি মুম্বইতে খেলাগুলো হবে। ৩০ জানুয়ারি থেকে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা শুরু হওয়ার কথা। তাই ভার সেইদিন থেকে চালু করতে চায় টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষ। চলবে ৬ ফেব্রুয়ারি অবধি।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: লাল-হলুদ জার্সিতে মাত্র ২টি গোল, ব্যর্থ চিমাকে ছেড়েই দিল এসসি ইস্টবেঙ্গল]

তার জন্য ইতিমধ্যেই প্রযুক্তি বসানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (AFC) জানিয়েছে, দেশে ভার আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করার আগে স্টেডিয়াম ও প্রশিক্ষণের জায়গা একাধিক প্রযুক্তিগত পরীক্ষা করা হবে। আসলে প্রতিযোগিতায় রেফারিংয়ের মান নিশ্চিত করতে এএফসি কোনও ত্রুটি রাখতে রাজি নয়। টুর্নামেন্ট চলাকালীন ছ’টি কোণ থেকে রেফারিদের লাইভ ক্যামেরা ফিডে যোগ করা থাকবে। চারটি বিভাগের সিদ্ধান্ত ভারের সাহায্য নিতে পারে রেফারি। যেমন গোল, কী গোল নয়, সঠিক না ভুল পেনাল্টি দেওয়া হয়েছে, লাল কার্ড দেখানো সঠিক কিনা, প্রকৃত দোষীকে লাল বা হলুদ কার্ড দেখানো হল কিনা। পর্যালোচনার পর ভার মাঠের রেফারিকে সিদ্ধান্ত বদল করতে বলতেই পারে। তবে সুস্পষ্ট ত্রুটি ধরা পড়া চাই। কিন্তু মাঠের রেফারি যদি মনে করেন ভারের পরামর্শ নেবেন না, তাহলে তা করতেই পারেন।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ফুটবলারের করোনা, পিছিয়ে গেল আইএসএলের এটিকে মোহনবাগান-ওড়িশা ম্যাচ]

প্রসঙ্গত, আইএসএলে (ISL) রেফারিংয়ের মান নিয়ে ইতিমধ্যেই বহুবার প্রশ্ন উঠেছে। কিন্তু ভারের খরচের বহর দেখে তা আইএসএলে কার্যকর করা সম্ভব হয়নি। মেয়েদের এশিয়ান কাপেই প্রথমবার ভারতের মাটিতে এই অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার দেখা যাবে। ইউরোপের দেশগুলিতে ইতিমধ্যেই সাফল্যের সঙ্গে এই প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু হয়েছে। এখন দেখার ভারতে VAR স্ফল হয় কিনা।

Advertisement
Next