AFC Cup: আই লিগ চ্যাম্পিয়নদের হারিয়েই AFC Cup অভিযান শুরু করতে চান মোহনবাগান কোচ ফেরান্দো

02:00 PM May 18, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতারই আরেক ক্লাব মহামেডান স্পোর্টিংকে হারিয়ে আই লিগ জেতার পর এবার গোকুলাম কেরালা এফসির (Gokulam Kerala FC) লক্ষ্য মোহনবাগান। তবে প্রেক্ষিতটা পুরোপুরি আলাদা, আই লিগের সঙ্গে এফসি কাপের ম্যাচের মানের পার্থক্য কয়েক যোজন। তবুও সদ্য আই লিগ (I-League) জয় করে আত্মবিশ্বাসে ফুটছেন গোকুলাম কেরালা এফসি ফুটবলারা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

এফসি কাপের (AFC Cup) মূল রাউন্ডে গ্রুপ লিগের ম্যাচ খেলতে নামার আগে গোকুলামের আই লিগ জয়ের বিষয়টিকেই বেশি করে গুরুত্ব দিচ্ছেন মোহনবাগান বাগান কোচ জুয়ান ফেরান্দো। বলেছিলেন, ‘‘গোকুলাম ভাল দল। সদ্য আই লিগ জিতেছে। তবে আমাদের দলও তৈরি।’’ দেখতে গেলে, ধারে-ভারে এই গ্রুপে গোকুলাম, মাজিয়া এফসি ও বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংসের থেকে অনেকটাই শক্তিশালী মোহনবাগান (Mohun Bagan)। তবে কোনও ঝুঁকি নিতে চান না সবুজ-মেরুন কোচ ফেরান্দো। কারণ গতবারের এফসি কাপের তথ্যটা তাঁর জন্য যথেষ্ট মাথাব্যথার। গত মরশুমে এফসি কাপে বসুন্ধরা কিংসকে হারাতে পারেনি মোহনবাগান। ড্র করতে হয়েছিল। এবার তাই বুধবার বিকাল সাড়ে চারটে সময় ঘরের মাঠে এফসি কাপের মূল পর্বের ম্যাচ খেলতে নামার আগে যথেষ্ট সতর্ক সন্দেশ জিঙ্ঘানরা।

[আরও পড়ুন: কোহলিকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ক্রিকেট লিগে খেলতে আমন্ত্রণ, স্তম্ভিত ক্রিকেট বিশ্ব]

প্রাথমিক রাউন্ডের ম্যাচগুলিতে চোটের জন্য সন্দেশকে খেলাননি ফেরান্দো। সুখের খবর গোকুলামের বিরুদ্ধে মূল পর্বের ম্যাচ খেলতে নামার আগে পুরোটাই সুস্থ তিনি। ফেরান্দো (Juan Ferrando) চোট-আঘাত নিয়ে যা বললেন, তাতে সুসাইরাজ ছাড়া বাকি সবাই সুস্থ। তবে বিদেশিদের মধ্যে কোন চার জনকে গোকুলামের বিরুদ্ধে খেলাবেন তা কিছুতেই ভাঙলেন না মোহনবাগান কোচ। এশিয়ান কোটায় ডেভিড উইলিয়ামসকে খেলাতেই হবে, তাই বাকি তিন বিদেশির মধ্যে রয় কৃষ্ণর (Roy Krishna) সুযোগ পাওয়া সত্যি কঠিন। তবে সন্দেশ ফিরে আসায় ডিফেন্স এখন অনেকটাই শক্তিশালী।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: মশা মারার র‌্যাকেটের ছবি দিয়ে অভিনন্দন থমাস কাপ জয়ী দলকে! নেটিজেনদের তোপের মুখে IAS অফিসার]

শুরুতে এফসি ম্যাচ দিয়েছিল দুপুর দু’টোয়। যা পরে মোহনবাগানের আপত্তিতে সময় পরিবর্তন হয়ে বিকাল সাড়ে চারটেয় হয়ে যায়। অথচ গোকুলাম পুরো আই লিগটা গরমের দুপুরে রোদে খেলে গিয়েছে। ফলে আবহাওয়াগত দিক থেকে কিছুটা হলেও সুবিধেজনক অবস্থায় থাকবে কেরালার দলটি। যদিও তা মানছেন না ফেরান্দো। বললেন, ‘‘এফসি কাপের ম্যাচের সময়ের কথা ভেবেই আমরা সেই সময়ে প্র্যাক্টিস করেছি। সঙ্গে বেশ কিছু প্র্যাক্টিস ম্যাচও খেলেছি একই সময়ে। ফলে আবহাওয়ার কোনও সমস্যা আমাদের দলের কোনও ফুটবলের হবে না।” বরং পাল্টা নিজেদের সুবিধার কথা বললে ফেরান্দো মনে করালেন, মোহনবাগান খেলবে ঘরের মাঠের জনসমর্থনকে সঙ্গী করে। যা গোকুলাম পাবে না। আর এই কথা ভালভাবে জানেন গোকুলাম কোচ ভিনেনজো আলবার্তো। মহামেডানকে হারালেও মোহনবাগান ম্যাচ যে তাঁর কাছে পর্বতসমান বাধা, এ কথা ভালভাবেই জানেন আলবার্তো। এই কারণে প্রথম ম্যাচে হুগো বুমোসদের থেকে এক পয়েন্ট ছিনিয়ে নিতে পারলেই তিনি খুশি। যদিও মুখে বলছেন, ‘‘ম্যাচটা আমরা জেতার জন্যই খেলব।’’ পাশাপাশি গোকুলাম ম্যাচের তিন পয়েন্ট নিয়ে বসুন্ধরা ম্যাচের আগে পুরো দলকে ভালো জায়গা রাখতে চাইছেন ফেরান্দো।

আজ এএফসিতে
মোহনবাগান বনাম গোকুলাম কেরালা
যুবভারতী, বিকেল ৪.৩০
স্টার স্পোর্টস

Advertisement
Next