এশিয়ান কাপের নকআউট পর্বই পাখির চোখ সুনীলদের, ভাল ফল করলে চাকরি থাকবে স্টিমাচের

09:46 AM Oct 05, 2022 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার : আগেই ঠিক হয়ে গিয়েছিল। বাকি ছিল শুধু সরকারি স্তরে শিলমোহর পড়া। মঙ্গলবার সেই শিলমোহর দিল ফুটবল ফেডারেশন (AIFF)। ২০২৩ সালের এএফসি এশিয়ান কাপ (AFC Asian Cup) পর্যন্ত ভারতীয় ফুটবল দলের (Indian Football Team) কোচ হয়ে থাকবেন ইগর স্টিমাচ (Igor Stimac)।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

গতমাসে কলকাতায় ফুটবল ফেডারেশনের এক্সিকিউটিভ কমিটির সভায় ঠিক হয়েছিল স্টিমাচকে আগামী এশিয়ান কাপ পর্যন্ত দায়িত্বে রেখে দেওয়া হবে। তার আগে টেকনিক্যাল কমিটি একই ব্যাপারে সুপারিশ করেছিল। এদিন দিল্লিতে ফুটবল ফেডারেশনের অফিসে সচিব শাজি প্রভাকরণ সেই চুক্তিতে স্টিমাচকে দিয়ে স্বাক্ষর করিয়ে নেন। সুতরাং সুনীল ছেত্রীদের (Sunil Chhetri) হেড কোচ হিসেবে আপাতত কাজ করবেন ক্রোট। সেই সঙ্গে ফুটবল ফেডারেশন এও জানিয়েছে, যদি ইগর আগামী এশিয়ান কাপে ভাল ফল দেখাতে পারেন তাহলে তাঁর চুক্তির মেয়াদ ফের বাড়ানো হবে। সেই ভাল ফল কি? শেষ আটে যাওয়া।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: শাহর সফরের মধ্যেই গুলির লড়াই কাশ্মীরে, সোপিয়ানে নিকেশ ৩ জইশ জঙ্গি-সহ ৪ জেহাদি]

স্টিমাচও বুঝে গিয়েছেন, চাকরির মেয়াদ বাড়াতে হলে তাঁকে ভাল কিছু করতেই হবে। সেইজন্য স্টিমাচ বলেছেন, “আমরা ইতিমধ্যে এশিয়ান কাপে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করে ফেলেছি। তাই এশিয়ান কাপে খেলতে যাওয়ার আগে ক্রমাগত আমাদের পারফরম্যান্সের উন্নতি ঘটাতে হবে। দলে আনতে হবে ভারসাম্য। জানি পদ্ধতিটা এত সহজ নয়। অনেক কষ্ট করলে তবেই ভালে জায়গায় আমরা পৌঁছতে পারব। যদি সঠিক পদ্ধতি ধরে রেখে আমরা এগোতে পারি, প্র‌্যাকটিসে নিজেদের মধ্যে ফাঁকি না দিই, তাহলে প্রতিযোগিতার নক–আউটে না পৌঁছনোর কোনও কারণ নেই।”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

২০১৯ সাল থেকে ভারতীয় দলের কোচ হয়ে এসেছেন ইগর স্টিমাচ। তাঁর অধীনে ভারত গ্রুপ সেরা হয়ে এশিয়ান কাপের মূলপর্বে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে। এদিন চুক্তিতে সই করার পর ইগর বলেছেন, “ভাল লাগছে ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন আমার উপর আস্থা রেখেছে। তাঁরা আমার কাজে খুশি। এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে দল ভালেই খেলেছে। তবে আরও ভালে কিছু করতে গেলে প্রত্যেকের আরও উন্নতি করা প্রয়োজন। যদি এই বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হতে পারি তাহলে মহাদেশীয় স্তরে ভারতীয় ফুটবলের গুরুত্ব অনেক বেড়ে যাবে। সেইজন্য সেরাটা দিতেই হবে।”

[আরও পড়ুন: নিয়মরক্ষার ম্যাচে সেঞ্চুরি রসোর, হোয়াইট ওয়াশ হল না ভারতের]

ফুটবল ফেডারেশনের সচিব শাজি প্রভাকরণও চুক্তিপত্রে সই করার পর সন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, “নতুন জাতীয় দলের অগ্রগতি দেখার অপেক্ষায় রয়েছে এআইএফএফ। আমরা একটা নতুন পরিকল্পনা তৈরি করে এগোতে চাইছি। তাই নতুন দল হিসেবে তুলে ধরাই হল আমাদের এখন একটাই লক্ষ্য।” সেই সঙ্গে শাজি এও জানিয়েছেন, একটা সিস্টেমের মধে্য এগনোর লক্ষ্যকে সামনে রেখে ভারতীয় ফুটবল আগামী দিনে এগোবে।

Advertisement
Next