Advertisement

বিতর্ক-আতঙ্ক নিয়েই আয়োজিত Tokyo Olympics, তিরন্দাজির শুরুতে উধাও দীপিকার ম্যাজিক

11:21 AM Jul 23, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একদিকে ‘হলোকাস্ট’ বিতর্ক। অন্যদিকে করোনা আতঙ্ক। এই দুই বিষয়কে সঙ্গে নিয়েই শুক্রবার শুরু হল টোকিও অলিম্পিক। প্রথম দিনেই যদিও শুরুটা খারাপ করলেন ভারতীয় তিরন্দাজ তথা বিশ্বের এক নম্বর দীপিকা কুমারী। Ranking রাউন্ডে ৬৬৩ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে শেষ করলেন তিনি। ফলে 1/32 elimination রাউন্ডে তাঁর সামনে ভূটানের কর্মা। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালেই মুখোমুখি হবেন কোরিয়ার আন সানের। যিনি কিনা তিরন্দাজির এই রাউন্ডের শুরুতেই ২৫ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দিয়ে প্রথম স্থান পেয়েছেন। অর্জন করেছেন ৬৮০ পয়েন্ট। যা কিনা অলিম্পিকের ইতিহাসে তিরন্দাজিতে রেকর্ডও। ফলে শুরুতেই কঠিন লড়াই দীপিকার সামনে।

Advertisement

অন্যান্যবারের তুলনায় এবারের অলিম্পিকও বিরল। করোনার কারণে আগেই এক বছর পিছিয়েছে প্রতিযোগিতা। বহু স্পনসর সরে দাঁড়িয়েছে। দর্শকরা থাকতে পারবেন না। বায়ো বাবলের মধ্যে থেকেও দিনের পর দিন অ্যাথলিটরা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। টোকিও অলিম্পিক অর্গানাইজিং কমিটির প্রধান তোশিরো মুতো পর্যন্ত জানিয়েছেন তিনি নিশ্চিত নন আদৌ অলিম্পিক শেষ করতে পারবেন কিনা। শুক্রবার ভারতীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ সাদামাটা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়েই শুরু হবে টোকিও অলিম্পিক। যেখানে মার্চ পাস্টে অনেক দেশই ন্যূনতম প্রতিযোগীকে পাঠাতে চলেছে। ভারত থেকে থাকতে চলেছেন ৬ জন আধিকারিক এবং ১৮ জন প্রতিযোগী।

[আরও পড়ুন: ইংল্যান্ড সিরিজের আগেই বিপাকে Team India! গিল, আভেশ খানের পর ছিটকে গেলেন সুন্দর]

তবে অলিম্পিকের ঢাকে কাঠি পড়ার আগেও দুই বিতর্কে বিদ্ধ ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’। বিতর্ক নম্বর এক, কেন্তারো কোবায়াশি। এ বারের অলিম্পিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান ডিরেক্টর ছিলেন কেন্তারো। সমস্ত স্ক্রিপ্ট-টিপ্ট লেখাও হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু হঠাৎই টুর্নামেন্টের সংগঠকরা জানিয়ে দিলেন কেন্তারোকে বরখাস্ত করা হয়েছে। পেশায় কেন্তারো স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান। নয়ের দশকে নিজের একটা স্ক্রিপ্টে বিশ্বের অন্যতম ট্র্যাজিক পর্ব ‘হলোকাস্ট’–এ প্রাণ হারানো মানুষদের নিয়ে ঠাট্টা করেন জাপানের জনপ্রিয় কমেডিয়ান। আর তাতেই ধিকিধিকি করে জ্বলতে থাকা ক্ষোভের আগুন দাবানলের আকার নেয়। বহু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা প্রশ্ন তুলে দেয় ঠিক কোন যুক্তিতে এমন একজনকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরিচালক করা হল যিনি নাকি হলোকাস্টের মতো এমন অন্ধকার একটা অধ্যায়কে ঠাট্টার বিষয়বস্তুতে পরিণত করেছিলেন? শেষমেশ অলিম্পিকের সংগঠকরা কেন্তারোকে জানিয়ে দেন তাঁকে পরিচালকের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

বিতর্ক নম্বর দুই, জ্যাক সেডন। গ্রেট ব্রিটেনের স্টিপেলচেজার। এগারোটা পরীক্ষার পর করোনা নেগেটিভ হয়েছেন। তাতেও তাঁকে রাখা হয়েছে নিভৃতাসাবাসে। যে বিমানে করে টোকিওয় এসেছেন জ্যাক সেখানে নাকি একজন যাত্রীর করোনা হয়েছে। ফলে ক্লোজ কন্ট্যাক্ট হিসাবে জ্যাককে নিভৃতাবাসে থাকতে হচ্ছে। টোকিও সংগঠকদের বিরুদ্ধে তাই ক্ষোভ প্রকাশ করেছে গ্রেট ব্রিটেনের টিম ম্যানেজমেন্ট। যাদের দাবি রোজই নাকি নিভৃতাবাসের নিয়ম পালটানো হচ্ছে। আর এসব বাদ দিলে করোনা আতঙ্ক তো রয়েইছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিশ্রুতি মতোই ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে এলেন মদন মিত্র, তুলে দিলেন একমাসের বেতন]

Advertisement
Next