Advertisement

Tokyo Olympics: নীরজের বায়োপিকের প্রস্তুতি বলিউডে! কী বললেন ‘সোনার ছেলে’?

11:54 PM Aug 10, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টোকিও অলিম্পিকে (Tokyo Olympics) জ্যাভলিন থ্রোয়ে সোনা জিতে ইতিহাস গড়েছেন ভারতের নীরজ চোপড়া। দেশকে এনে দিয়েছেন অ্যাথলেটিক্সে প্রথম সোনার পদক। ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা কেটে গেলেও ভারতবাসীর হ্যাংওভার বোধহয় এখনও কাটেনি। এর মধ্যেই নীরজের (Neeraj Chopra) বায়োপিক নিয়েও কিন্তু আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। যদিও এই প্রসঙ্গে নীরজের সাফ বক্তব্য, এখনই নিজের বায়োপিক নিয়ে ভাবতে চাই না। তার বদলে সামনের প্রতিযোগিতাগুলিকেই এখন পাখির চোখ করছেন ভারতীয় সেনার জওয়ান।

Advertisement

নীরজের (Neeraj Chopra) সাফল্যের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনা শুরু হয়ে যায়, এবার কি তাহলে বলিউডে নীরজের বায়োপিক তৈরি হবে? সেক্ষেত্রে নাম ভূমিকায় কে থাকবেন? অনেকেই মনে করছেন নীরজ নিজেও তাঁর বায়োপিকে অভিনয় করতে পারেন। কিন্তু সবাই যখন এই নিয়ে আলোচনায় ব্যস্ত, নীরজ কিন্তু নিজের পরবর্তী লক্ষ্য স্থির করে ফেলেছেন। আপাতত তাঁর পাখির চোখ ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হতে চলা এশিয়ান গেমস ও কমলওয়েলথ গেমস। দুই টুর্নামেন্টে ভাল পারফরম্যান্স করতে আগ্রহী ভারতের ‘সোনার ছেলে’।

[আরও পড়ুন: ‘বোন আর নেই’, Tokyo থেকে ফিরতেই মিলল দুঃসংবাদ, কান্নায় ভেঙে পড়লেন ভারতীয় স্প্রিন্টার]

এদিকে, বায়োপিক প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, “বায়োপিক নিয়ে এখনই কিছু ভাবিনি। এখনও অনেক গল্প আছে যেগুলো আগামী দিনে খুঁজে বের করতে হবে।” আগামী প্রতিযোগিতার দিকে মনোযোগ দিতে চান। বায়োপিকের কথা পরে ভাবা যাবে। আমি মনে করি খেলা চলাকালীন কোনও অ্যাথলিটেরই বায়োপিক তৈরি হওয়া উচিত নয়। হ্যাঁ, অবসরের পর তা নিয়ে ভাবা যেতেই পারে।” তবে এর আগে একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নীরজ তাঁর বায়োপিক তৈরি হলে কাদের দেখতে চান, সেকথা জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, তাঁর বায়োপিকে প্রথম পছন্দ রনদীপ হুড্ডা এবং দ্বিতীয় পছন্দ অক্ষয় কুমার।

অন্যদিকে, সোমবার থেকেই শুরু হচ্ছে নীরজদের (Neeraj Chopra) সংবর্ধনার অনুষ্ঠান। সোমবার সন্ধে সাড়ে ছ’টায় দিল্লির অশোক হোটেলে সব মেডেলজয়ীদের সংবর্ধনা দেবে সাই। মীরাবাই চানু-সহ যাঁরা আগেই দেশে চলে এসেছেন তাঁরাও থাকবেন। নীরজকে এয়ারপোর্ট থেকে অভ্যর্থনা জানাবে ভারতীয় সেনা। ইতিমধ্যে নীরজের বাড়ির লোককেও কোভিডবিধির জন্য ভিড় করতে মানা করা হয়েছে। আপাতত সেনার তত্ত্বাবধানেই নীরজ থাকবেন। তবে সাইয়ের অনুষ্ঠানের পর তিনি বাড়ির লোকের সঙ্গে হয়তো দেখা করার সুযোগ পাবেন।

[আরও পড়ুন: লাল-হলুদ কর্তাদের উচিত অবিলম্বে চুক্তিপত্রে সই করা, ইনভেস্টরের হয়েই সুর চড়ালেন Bhaichung]

Advertisement
Next