কমনওয়েলথে পদকজয়ী বাংলার দুই খেলোয়াড়কে অর্থসাহায্য, দেওয়া হবে চাকরিও, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

06:47 PM Aug 10, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কমনওয়েলথ গেমসে দেশকে পদক এনে দেওয়া বাংলার দুই অ্যাথলিটের পাশে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন অচিন্ত্য শিউলি (Achinta Sheuli) এবং সৌরভ ঘোষাল দু’জনকেই আর্থিক সাহায্য এবং সরকারি চাকরি দেওয়া হবে সরকারের তরফে।

Advertisement

Advertising
Advertising

একজন দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার থেকে উঠে এসে বিশ্বমঞ্চে দেশের নাম উজ্বল করেছেন। ভারোত্তোলনে সোনা জিতে কমনওয়েলথের পোডিয়ামে তেরঙ্গা উড়িয়েছেন। আরেকজন এমন একটি খেলায় দেশকে পদক এনে দিয়েছেন, যা বাংলা তো বটেই গোটা দেশেই সেভাবে পরিচিত নয়। স্কোয়াশের মতো খেলায় পদক জয় ভারতের জন্য ঐতিহাসিক। সেই কীর্তিটিই করেছেন এই বঙ্গসন্তান। একজন অচিন্ত্য শিউলি এবং অপরজন সৌরভ ঘোষাল (Sourav Ghoshal)। এবার এই দুই অ্যাথলিটের পাশে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানালেন সরকারের তরফে সবরকমভাবে এদের পাশে দাঁড়ানো হবে।

[আরও পড়ুন: ‘ওর অনেক নাম, কিন্তু…’, ধোনির উইকেট কিপিংয়ের সমালোচনায় প্রাক্তন পাক তারকা!]

বুধবার মোহনবাগান (Mohun Bagan) ক্লাবের নতুন তাঁবুর উদ্বোধনে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, কমনওয়েলথ গেমসে দেশকে পদক এনে দেওয়া বাংলার দুই অ্যাথলিটকেই আর্থিকভাবে সাহায্য করা হবে। ভারোত্তোলনে সোনা জয়ী অচিন্ত্য শিউলিকে দেওয়া হবে ৫ লক্ষ টাকা। আর স্কোয়াশে ব্রোঞ্জজয়ী সৌরভ ঘোষালকে দেওয়া হবে দু’লক্ষ টাকা। সেই সঙ্গে এই দু’জন অ্যাথলিটকেই দেওয়া হবে সরকারি চাকরি। সেই সঙ্গে আগামী ১৬ আগস্ট ‘খেলা দিবসে’ এদের দু’জনকেই সম্মানিত করবে রাজ্য সরকার।

[আরও পড়ুন: স্বার্থের সংঘাতে জড়িত মুম্বই ইন্ডিয়ান্স মালকিন নীতা আম্বানি? কড়া পদক্ষেপের পথে BCCI]

এমনিতে অ্যাথলেটিক্সে দেশের অন্য রাজ্যের তুলনায় কিছুটা পিছিয়েই রয়েছে বাংলা। এবছরও কমনওয়েলথ গেমসে (Commonwealth Games) অংশগ্রহণকারী অ্যাথলিটদের সংখ্যার নিরিখে হরিয়ানা (৩৪), পাঞ্জাব (২৬) বা তামিলনাড়ুর (১৬) তুলনায় বাংলা অনেকটাই পিছিয়ে। বাংলার মাত্র ৪ জন অ্যাথলিট এবারের কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু সেই চারজনের মধ্যেই দু’জন বাংলার নাম উজ্বল করেছেন। তাঁদেরই এবার সম্মানিত করার কথা ঘোষণা করলেন মমতা। যা আগামী দিনে রাজ্যের অ্যাথলিটদের উৎসাহ বাড়াবে বলেই মনে করা হচ্ছে। 

Advertisement
Next