দলে সব থেকে কিপটে বিরাট: যুবরাজ সিং

09:07 AM Sep 12, 2016 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটি এফএম চ্যানেলে তিনি যেন টি-২০ ম্যাচ খেলতে বসেছিলেন! হেঁয়ালি নয়৷ আসলে কুড়িটি প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছিল যুবরাজ সিংকে৷ শুধু তাঁর নিজের ব্যাপারে নয়৷ ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ে অনেক প্রশ্নও ছিল তালিকায়৷
তিনি সবসময় হাসিখুশি৷ পাঞ্জাবের ছেলে৷ ফলে ঠাট্টা ব্যাপারটা তাঁর না কি রক্তে৷ যুবির সাক্ষাৎকার মানে অনেক ব্যাপারই তাই হাসি-মজার ছলে উঠে আসে। এটা স্বাভাবিক৷ এদিনও সেটা হল৷ সোজা প্রশ্নের জবাব তিনি দিলেন সোজাভাবে৷ ঘুরিয়ে ফিরিয়ে কোনও বিষয় জটিল করলেন না৷
প্রথম প্রশ্নই ছিল, কেরিয়ারে কোন বোলারের বিরু‌দ্ধে খেলার সময় তিনি সব থেকে ভয়ে থাকতেন! যুবি বলছিলেন, “আমি বর্ণবিদ্বেষমূলক মন্তব্য করব না৷ তবে মুথাইয়া মুরলীধরনের চেহারা সত্যিই ভয়ংকর৷ বল করতে আসার সময় সেই চেহারা যেন আরও ভয়ংকর হয়ে উঠত৷ ও বড় বড় চোখ করে তাকিয়ে থাকত৷ আমি কখনওই ব্যাটিংয়ের সময় ওর চোখের দিকে তাকাতাম না৷ আমরা বেশিরভাগ ম্যাচে ওকে নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা করতাম৷ তবে মাঠের বাইরে ও সত্যি প্রচণ্ড ভদ্রলোক৷ এটাও সত্যি, ওর ডেলিভারির কোনও উত্তর আমার কাছে থাকত না৷ প্রতিবারই ওর ডেলিভারি খেলার সময় আমি চরম মুশকিলে পড়তাম৷” আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে এখন যুবিদের মেন্টর কিন্তু মুরলী!
অসি ক্রিকেটারদের সঙ্গে তাঁর ও ভাজ্জির পুরনো ঝামেলার কথাও উঠল৷ যুবি বললেন, “ওরা এতটাই খারাপ খারাপ শব্দ ব্যবহার করত যে সেগুলো এখন অন এয়ার বলা সম্ভব নয়৷ দর্শকরা সেই সব শব্দের অনেকটাই হয়তো আগে শুনেছেন৷ খেলার মাঠে স্লেজিং সাধারণ ব্যাপার৷ তবে সেটা শালীনতার মাত্রা ছাড়িয়ে গেলে চলে না৷ শুধু অসিরা নয়, ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও মাঠে অনেক আজেবাজে কথা বলে স্লেজিং করে৷ তবে আমি বেশিরভাগ সময়ই মাথা ঠান্ডা রেখে ব্যাট করেছি৷”
ভারতীয় ক্রিকেটের এক নয়া তথ্য উঠে এল যুবির কথায়৷ “আমি পাঞ্জাবের ছেলে৷ ফলে পরিবার বা বন্ধুদের নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে সবাই মিলে খাওয়া-দাওয়া করতে ভালবাসি৷ সেক্ষেত্রে আমরা একজনই সবার খাবারের টাকা মিটিয়ে দিই৷ কিন্তু এই সংস্কৃতি ভারতীয় দলে নেই৷ যে যেটা খাবে, তাঁকে সেটার টাকা দিতে হবে৷ তবুও আমি বোধ হয় সব থেকে বেশি বিলের টাকা শোধ করেছি৷ সব থেকে হাতটান বিরাটের৷ ওর মতো কিপটে আজ পর্যন্ত দেখিনি৷ আমিই কতদিন ওকে বিল দেওয়ার জন্য জোর করেছি! আগে নেহরা এমনটা করত৷ ওর অজুহাত ছিল, এত খরচ করা চলবে না৷ ছেলে-বউ নিয়ে সংসার৷ এখন সেই জায়গাটা বিরাট নিয়েছে”, বলছিলেন যুবরাজ৷
কথায় কথায় প্রশ্ন, খরচের ক্ষেত্রে সব থেকে হাত খোলা তবে কে? যুবি বললেন, “জাভাগল শ্রীনাথ৷ একবার আমাদের এক পার্টিতে নিয়ে গিয়েছিলেন শ্রীনাথজি৷ প্রচুর খরচ করেছিলেন উনি সেদিন৷”
বিশ্বাস না হলে ভিডিওয় দেখে নিন যুবির এই জবানবন্দি!

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post দলে সব থেকে কিপটে বিরাট: যুবরাজ সিং appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertising
Advertising

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next