মেক্সিকোর টাউন হলে গুলিবৃষ্টি, নিহত মেয়র-সহ ১৮

09:51 AM Oct 06, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মেক্সিকোয় বন্দুকবাজের হামলা। প্রাণ গেল শহরের মেয়র-সহ মোট ১৮ জনের। সিটি হলে হামলার আগে শহরের প্রাক্তন মেয়রের বাড়িতে ঢুকে হত্যা করে হামলাকারীরা। পুলিশের রিপোর্ট বলছে, দলের পাণ্ডার হত্যার বদলা নিতেই নারকীয় হত্যালীলা চালাল ড্রাগ মাফিয়ারা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ভারতীয় সময় অনুযায়ী বুধবার সন্ধে সাড়ে সাতটা নাগাদ দক্ষিণ পশ্চিম মেক্সিকোর ছোট শহর সান মিগুয়েল টোটালাপনের টাউন হলে হামলা চালায় জনা কয়েক আততায়ী। গুলিতে ঝাঁজরা করে দেয় শহরের মেয়র, কাউন্সিল সদস্য এবং পুলিশের পদস্থ কর্তাদের। লস টাকিলারস মাফিয়া গ্যাং হামলা চালায় বলে অভিযোগ। তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, গ্যাংস্টার রায়বেল জ্যাকব দে আলমোন্টের মৃত্যুর বদলা নিতেই এই হামলা।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় ডুয়ার্সের মাল নদীতে হড়পা বান, মৃত অন্তত ৮]

এদিকে মেয়র কনরাডো মেন্ডোজা আলমেডার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করে দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে তাঁর দল পিআরডি। টাউন হলে হামলার আগে শহরের প্রাক্তন মেয়র তথা আলমেডার বাবা জুয়ার মেন্ডোজা অ্যাকোস্টার বাড়িতে ঢুকে তাঁকে খুন করে ড্রাগ মাফিয়ারা। উল্লেখ্য, সান মিগুয়েল শহরটি গুররেও প্রদেশে অবস্থিত। আর এই গুররেও ড্রাগ মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য মারাত্মক। সেখানে গোলাগুলি বা খুনোখুনির ঘটনা প্রায়শই ঘটে থাকে। তবে এধরনে নারকীয় হত্যালীলা নজিরবিহীন বলেই দাবি করছে এলাকাবাসী।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

জানা গিয়েছে, ঘটনাস্থলে পুলিশ যাতে সময়মতো পৌঁছতে না পারে তাই বড় বড় গাড়ি রেখে রাস্তাটা ব্লক করে দিয়েছিল হামলাকারীরা। যা দেখে এই হামলা পূর্ব পরিকল্পিত বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। উল্লেখ্য, ২০১৫-২০১৭ সাল পর্যন্ত সান মিগুয়েলে দাপট ছিল ড্রাগ মাফিয়া গ্যাং লস টাকিলারস। মেয়রকে খুনের হুমকি দিত তারা। এর মাঝেই গ্যাং লিডার রায়বেল জ্যাকব দে আলমোন্টের ওরফে এল টাকিলারসকে নিকেশ করে পুলিশ। সেই খুনের বদলা নিতেই এই হামলা বলে মনে করছে পুলিশ। আততায়ীদের খোঁজে সেনা ও নৌবাহিনী নামানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও আলোচনা নয়, কাশ্মীরকে সন্ত্রাসমুক্ত করাই লক্ষ্য’, সাফ কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর]

Advertisement
Next