‘রুটি, কাজ, স্বাধীনতা’, রাজপথে তালিবানের বিরুদ্ধে মিছিল আফগান নারীদের

04:57 PM May 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘রুটি, কাজ, স্বাধীনতা’। এটাই এখন দাবি তালিবান অধ্যুষিত আফগানিস্তানের (Afghanistan) মহিলাদের। রবিবার তাঁদের এই ‘অধিকার বুঝে নেওয়া প্রখর দাবি’তেই কাবুলের রাজপথে নামতে দেখা গেল অন্তত দু’ডজন আফগান মহিলাকে। গত আগস্টে আফগানিস্তান দখল করে তালিবান (Taliban)। তারপর থেকেই ক্রমশ সেখানে মেয়েদের অন্তঃপুরে পাঠানোর বন্দোবস্ত করেছে জেহাদিরা। এবার এই শোষণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন আফগানিস্তানের নারীরা।

Advertisement

সংবাদ সংস্থা এএফপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, মুখ ঢাকা পোশাক পরেই আন্দোলন করছিলেন তাঁরা। তাঁদের স্লোগান দিতে দেখা যায়, ”শিক্ষা আমাদের অধিকার। স্কুল খুলতে হবে।” সেদেশের শিক্ষামন্ত্রকের ভবনের সামনেই জড়ো হয়েছিলেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: দেশজুড়ে ভয়াবহ সংকট, দীর্ঘ ছ’বছর পরে বিদেশ থেকে কয়লা আমদানি করবে ভারত]

তবে মিছিলটি দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। কয়েকশো মিটার হাঁটার পরই তাঁদের থামিয়ে দেয় তালিবান। এক বিক্ষোভকারী ঝোলিয়া পার্সির কথায়, ”আমরা আমাদের দাবিগুলি পড়ে শোনাতে চাইছিলাম। কিন্তু তালিবান তা করতে দিল না। ওরা কয়েকজনের থেকে ফোনও নিয়ে নেয়। কোনও ভাবেই যাতে এই বিক্ষোভের ভিডিও বা ছবি না ওঠে, সেই চেষ্টা করছিল ওরা।”

Advertising
Advertising

আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখলের পরে তালিবান প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, নারীশিক্ষায় বাধা দেওয়া হবে না। কিন্তু বাস্তবে সেই কথা রাখেনি তারা। গত মার্চ মাসে মাধ্যমিক স্তরে মেয়েদের স্কুল খোলার কথা ঘোষণা করেও শেষ পর্যন্ত তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তালিবান ক্ষমতায় আসার পরে বহু মহিলা পথে নেমে বিক্ষোভ করেছিলেন। ফলে তাঁদের প্রতি তালিবানের রাগ রয়েছে। তালিবান নেতা সিরাজুদ্দিন হাক্কানি বলেছেন, দুষ্টু মেয়েদের বাড়িতেই থাকতে হবে। অর্থাৎ সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে পড়াশোনা করার অনুমতি মিলবে না।

[আরও পড়ুন: এক বছরে দেশে জাল নোট বেড়ে দ্বিগুণ! রিজার্ভ ব্যাংকের তথ্য তুলে মোদিকে তোপ তৃণমূলের

তবে এহেন হুমকিতেও যে তালিবান নারীরা নিজেদের অধিকার রক্ষার লড়াই থেকে সরে আসবে না তা পরিষ্কার হয়ে গেল রবিবার। এর আগে নিরাপত্তা পরিষদ (United Nations) বিরোধিতা করেছিল তালিবানের। আফগান নারীদের পড়াশোনা, সরকারি চাকরি এবং চলাফেরার স্বাধীনতা- সমস্ত ক্ষেত্রেই বাধা সৃষ্টি করছে তালিবান। এই মর্মে একটি প্রস্তাব পাশ করে নিরাপত্তা পরিষদের পনেরোটি সদস্য দেশ। সকলেই এই প্রস্তাবে ঐকমত্য পোষণ করে। যদিও আফগানিস্তানের বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছিল, নিরাপত্তা পরিষদের বক্তব্য ভিত্তিহীন। আফগান নারীদের অধিকার সুরক্ষিত রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তালিবান সরকার। সেই দাবি যে কত ঠুনকো, তা ফের পরিষ্কার হয়ে গেল তালিবানের নারীদের প্রতিবাদ মিছিলে থেকে।

Advertisement
Next