পাকিস্তানের লাহোরে বোমা বিস্ফোরণে মৃত ৩, আহত অন্তত ২৩ জন

05:54 PM Jan 20, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটা ডেস্ক: বোমা বিস্ফোরণে (Bomb Blast) কেঁপে উঠল পাকিস্তানের (Pakistan) অন্যতম বড় শহর লাহোর (Lahore)। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, বৃহস্পতিবার লাহোরের বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। আহত হয়েছেন অন্তত ২৩ জন।

Advertisement

ডন-সহ পাকিস্তানের অন্য সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, ভিড় এলাকা লাহোরি গেটের কাছে বিস্ফোরণটি ঘটে এদিন। কাছেই শহরের বিখ্যাত আনারকলি বাজার। বাজারের একাধিক দোকানের জানলা-দরজার কাঁচ ভেঙে যায় বিস্ফোরণের তীব্রতায়। লাহোর পুলিশের মুখপাত্র রানা আরিফ জানিয়েছেন, বোমা রাখা ছিল একটি মোটরসাইকেলের মধ্যে। আচমকা বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনায় মৃত্যু হয় ৩ জনের। আহত হয়েছেন মোট ২৩ জন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।

এদিকে পাক পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী উসমান বুজদার বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার কথা জানতে পারা মাত্রা স্থানীয় পুলিশ প্রধানদের কাছে রিপোর্ট তলব করেছেন। আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছেন উসমান।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে বাসের মধ্যে ভয়াবহ IED বিস্ফোরণ, অন্তত ১৩ জনের মৃত্যু]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহতদের স্থানীয় মায়ো হাসপাতালে (Mayo Hospital ) ভরতি করা হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত দুটি মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। 

এদিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে লাহোর পুলিশের বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াড। ওই এলাকায় আরও বোমা আছে কিনা তল্লাশি চালিয়ে দেখছে তারা। বিপদ এড়াতে এলাকা খালি করে দেওয়া হয়েছে। লাহোর পুলিশের ডিআইজি (DIG) জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্তে স্পষ্ট হয়েছে আইইডি (IED) অথবা টাইম বোমা ব্যবহার করা হয়েছিল বিস্ফোরণ ঘটাতে। এখনও পর্যন্ত কোনও সংগঠন এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি।

[আরও পড়ুন: আবু ধাবির বদলা! ইয়েমেনের জঙ্গি ঘাঁটিতে সৌদি জোটের বিমান হামলা, মৃত ১৪]

প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসে পাকিস্তানের (Pakistan) একটি বাসে ভয়াবহ বিস্ফোরণ (Massive blast) ঘটে। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল অন্তত ১৩ জন যাত্রীর। IED বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল জঙ্গিরা। নিহত ১৩ জনের মধ্যে ৯ জন ছিলেন চিনা ইঞ্জিনিয়ার। দাসু বাঁধের নির্মাণকাজে কাজ করতে যাচ্ছিলেন তাঁরা। 

চিনের ইঞ্জিনিয়াররা দাসু হাইড্রো ইলেকট্রিক প্রকল্পে বহু বছর ধরেই কাজ করছেন ওই এলাকায়। সেই কারণে তাঁদের ও পাকিস্তানি নির্মাণকর্মীদের আসা যাওয়া লেগেই থাকত এলাকায়। সেই পথেই ঘটে যায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ। 

Advertisement
Next