চিনের বিক্ষোভের ছবি তোলার ‘অপরাধ’, গ্রেপ্তার করে BBC’র সাংবাদিককে মার জিনপিং প্রশাসনের

10:24 AM Nov 28, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কঠোর কোভিড বিধি থেকে মুক্তি চেয়ে পথে নেমে জিনপিং প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন চিনের (China) সাধারণ মানুষ। লকডাউন মানবেন না, এই দাবিতে বিপুল সংখ্যক মানুষ রাস্তায় নেমেছেন। এহেন পরিস্থিতিতে প্রকাশ্যে এল চিন প্রশাসনের দমননীতির ছবি। সংবাদসংস্থা বিবিসি (BBC) জানিয়েছে, তাদের এক সাংবাদিককে অযথা হেনস্তা করেছে চিনের পুলিশ। জনতার প্রতিবাদের ছবি তোলার ‘অপরাধে’ এড লরেন্স নামে ওই সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাঁকে মারধরও করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

রবিবার সকাল থেকেই জিনপিংয়ের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন চিনা নাগরিকরা। নিজের পেশার কারণেই বিক্ষোভ কর্মসূচির ছবি তুলতে গিয়েছিলেন এড। সেখানেই তাঁকে হাতকড়া পরিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বিবিসির তরফে জানানো হয়েছে, “আমাদের সাংবাদিক এড লরেন্স সাংহাইতে বিক্ষোভের খবর তুলে ধরছিলেন। সেই সময়েই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিনা দোষে দীর্ঘক্ষণ তাঁকে আটকে রাখা হয়। পুলিশি হেফাজতে মারধরও করা হয়েছে এডকে। যথাযথ পরিচয়পত্র থাকা সত্বেও তাঁকে হেনস্তা করেছে চিনের পুলিশ।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে মরক্কোর বিরুদ্ধে হার হজম হয়নি, রাতভর দাঙ্গা বেলজিয়ামে, আটক বহু]

গোটা বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে ব্রিটিশ সংবাদসংস্থা। তাদের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “চিনা প্রশাসনের থেকে এই ঘটনা নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করা হয়নি। কেবল জানানো হয়েছে, এডের কথা ভেবেই তাঁকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। কারণ চিনে নতুন করে কোভিডের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। ভিড়ের মধ্যে থাকলে এডও আক্রান্ত হতে পারেন, সেই জন্যই তাঁকে গ্রেপ্তার করে ভিড় থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। কিন্তু চিনা প্রশাসনের এহেন যুক্তি একেবারেই সমর্থন করছে না বিবিসি।” তবে চিনের তরফে এই ঘটনা নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু জানানো হয়নি।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রসঙ্গত, বেজিং-সহ একাধিক শহরে নতুন করে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে। গত চারদিন ধরে দৈনিক করোনা (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার ছুঁইছুঁই। তাছাড়াও দিন কয়েক আগে উরুমকি শহরের একটি বাড়িতে আগুন লেগে ১০ জনের মৃত্যু হয়। অভিযোগ, বহুতলটির চারপাশে লকডাউন থাকায় সেই বহুতলের বাসিন্দারা পালিয়ে প্রাণে বাঁচতে পারেননি। লকডাউন মানবেন না, এই অবস্থানে অনড় রয়েছেন চিনের নাগরিকরা। চিনা প্রশাসনের নীতির বিরুদ্ধে লাগাতার প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন তাঁরা। 

[আরও পড়ুন:ইরানের পতাকা থেকে আল্লার চিহ্ন সরিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট আমেরিকার, ক্ষুব্ধ তেহরান]

Advertisement
Next