পাকিস্তানে তেলের ট্যাঙ্কারের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষ, পুড়ে মৃত অন্তত ২০

01:22 PM Aug 16, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানে বাসের সঙ্গে তেলের ট্যাঙ্কারের সংঘর্ষে মৃত্যু হল অন্তত ২০ জনের। জানা গিয়েছে, সংঘর্ষের ফলে যাত্রীবাহী বাসটিতে আগুন ধরে যায়। তখনই পুড়ে গিয়ে মৃত্যু হয় ওই কুড়ি জনের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি আরও ছয় জন। মঙ্গলবার ভোরে পাঞ্জাব প্রদেশের মূলতানে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে (Pakistan) পথ দুর্ঘটনার সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত শনিবারও যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১৩ জন।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাত আড়াইটে নাগাদ লাহোর থেকে করাচি যাচ্ছিল একটি যাত্রীবাহী বাস। ভোর চারটে নাগাদ পথেই একটি তেল ট্যাঙ্কারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বাসটির। সঙ্গে সঙ্গেই দু’টি গাড়িতে আগুন ধরে যায়। ঘটনাস্থলেই পুড়ে মৃত্যু হয়েছে কুড়ি জনের। গুরুতর আহত অবস্থায় আরও ছ’জনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ফলে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলেই অনুমান পুলিশের।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: গৃহযুদ্ধে জর্জর মায়ানমারে রাষ্ট্রসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি, চাপ বাড়ল সেনাশাসকদের]

অনুমান করা হচ্ছে, দুর্ঘটনার সময়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন বাসের চালক। তারপরেই প্রায় হাজার লিটার তেল বহনকারী ট্যাঙ্কের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বাসটির। ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট তলব করেছেন পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পারভেজ ইলাহি। আহতদের যথাযথ চিকিৎসা করতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। মৃতদেহগুলি পুড়ে যাওয়ায় শনাক্ত করতে অসুবিধা হচ্ছে। তাই ডিএনএ পরীক্ষা করে তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

সাম্প্রতিক অতীতে পাকিস্তানে পথ দুর্ঘটনার সংখ্যা বেশ বেড়ে গিয়েছে। গত শনিবারই পাঞ্জাবে একইরকম সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছিল ১৩ জনের। তার আগেও পাহাড়ি রাস্তায় বেলাগাম গতিতে বাস চালানোর ফলে দুর্ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানে। বারবার সেদেশের চালকদের মানসিকতা এবং রাস্তার বেহাল দশা নিয়ে সমালোচনা হয়েছে। প্রত্যেকটি দুর্ঘটনার পরেই প্রশাসনের তরফে আশ্বাস দেওয়া হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি।

[আরও পড়ুন:উপহারেও গলল না মন, ভারতের আপত্তি উড়িয়ে শ্রীলঙ্কায় হাজির চিনা নজরদারি জাহাজ]

Advertisement
Next