Advertisement

জালিয়াতি হয়নি! ফেডেরাল আদালতে আরজি খারিজ, সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি ট্রাম্পের

11:50 AM Nov 29, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পেনসিলভেনিয়ায় জো বিডেনের (Joe Biden) জয়ের সরকারি স্বীকৃতির উপর স্থগিতাদেশ আনতে অস্বীকার করল ফেডেরাল আদালত। সদ্যসমাপ্ত নির্বাচনে যে জালিয়াতি হয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) সেই দাবিকে নস্যাৎ করে দিল আদালত। গত ৩ নভেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতারণা করা হয়েছে, এই মর্মে আদালতে আবেদন করেছিল বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শিবির। কিন্তু অ্যাপিলস কোর্টের তিন বিচারক সেই দাবি খারিজ করে দিয়েছেন।

Advertisement

বিচারকদের কথায়, “অন্যায়ের অভিযোগ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু নির্বাচনকে অন্যায্য বললেই তা অন্যায্য হয়ে যায় না।” এর আগে এই মামলায় নিম্ন আদালত রিপাবলিকান শিবিরের বিরুদ্ধে রায় দেওয়ায় তারা অ্যাপিলস কোর্টে অভিযোগ করেছিল যে, তারা বৈষম্যের শিকার। সেই প্রসঙ্গে অ্যাপিলস কোর্টের বিচারকেরা কার্যত কটাক্ষ করে বলেছেন, “বৈষম্যের কোনও রাসায়নিক ক্ষমতা নেই শিসাকে সোনায় রূপান্তরিত করার।”

[আরও পড়ুন: ‘এখনই বলা যাবে না করোনার উৎপত্তিস্থল চিন নয়’, WHO-এর গলায় উলটো সুর]

গোটা দেশে এই নিয়ে দু’ডজনেরও বেশি মামলায় হারল ট্রাম্প শিবির। ট্রাম্পের প্রধান আইনজীবী রুডি গিলানি দাবি করেছিলেন, প্রতারণার কারণে পেনসিলভেনিয়ার লক্ষ লক্ষ ভোট বাতিল করতে হবে। সেই প্রদেশের আদালত গত সপ্তাহেই তাঁর আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। মামলার বিচারক আবার গিলানিকে স্বীকার করতে বাধ্য করিয়েছিলেন যে, ভোট চুরির দাবির পক্ষে তাঁদের হাতে কোনও প্রমাণ নেই। গত মঙ্গলবার পেনসিলভেনিয়া সরকার ওই প্রদেশে বিইডেনের জয়কে সরকারি স্বীকৃতি দেয়। সেই স্বীকৃতি ফিরিয়ে নেওয়ার আবেদন করেছিল ট্রাম্প শিবির। যা নাকচ হয়ে গেল।

ফেডেরাল আদালত এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছে যে, যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে এ ব্যাপারে নতুন আবেদন করলেও কোনও লাভ হবে না। তবু ট্রাম্পের আইনি দলের অন্যতম সদস্য জেনা এলিস জানিয়েছেন, তাঁরা সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছেন। ‘পেনসিলভেনিয়ার বিচারবিভাগ এখনও ব্যাপক ভোট চুরির অভিযোগ লুকিয়ে যাচ্ছে। এবার সুপ্রিম কোর্টে যাব,’ টুইট করেছেন জেনা। হোয়াইট হাউসে সম্মিলিত সাংবাদিকদেরও ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, “আপনাদের সবাইকে বুঝতে হবে, এই নির্বাচনে প্রতারণা হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ‘মহিলা-শিশুরা জন্তু, তবে তাঁদের অধিকার আছে’, বেফাঁস ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী]

Advertisement
Next