অল্পের জন্য রক্ষা, জরুরি অবতরণ ইমরানের বিমানের! দুর্ঘটনা না হত্যার ষড়যন্ত্র, উঠছে প্রশ্ন

03:36 PM Sep 11, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অল্পের জন্য বিমান দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলেন পাকিস্তানের (Pakistan) প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। সেদেশের এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, মাঝ আকাশে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দ্রুত জরুরি অবতরণ করে বিমানটি। তবে ইমরান কিংবা বিমানে থাকা কোনও যাত্রীরই কোনও ক্ষতি হয়নি।

Advertisement

পাক সংবাদমাধ্যমের দাবি, শনিবার গুজরানওয়ালায় যাওয়ার জন্য একটি বিশেষ বিমানে উঠেছিলেন ইমরান। কিন্তু বিমান যখন মাঝ আকাশে, আচমকাই দেখা যায় বিভ্রাট। যান্ত্রিক গোলযোগের দেখা পেতেই সেটিকে ফিরিয়ে আনা হয় ইসলামাবাদে। নিরাপদে অবতরণও করে সেটি।
কিন্তু এক পিটিআই নেতা টুইটারে জানিয়েছেন, বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির যে কারণের কথা বলা হচ্ছে. তা সঠিক নয়। তাঁর দাবি, খারাপ আবহাওয়ার কারণেই উড়ানের কিছুক্ষণ পরেই বিমানটিকে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে পরে সড়কপথে ইমরান গুজরানওয়ালায় গিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই নেতা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় বেরিয়ে বিয়ের প্রস্তাব পেলেন রাহুল, কী প্রতিক্রিয়া সোনিয়াপুত্রের?]

কয়েক দিন আগেই ইমরানের কনভয়ের একটি গাড়িতে আগুন লেগে গিয়েছিল। তবে কারও কোনও ক্ষতি হয়নি। এর আগে গত জুনে ইমরানকে হত্যার চক্রান্ত হচ্ছে বলে শোনা গিয়েছিল। পিটিআই (PTI) নেতা ফায়াজ চৌহান নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছিলেন, পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খানকে হত্যার ষড়যন্ত্রের বিষয়ে তথ্য আছে তাঁর কাছে। এরই মধ্যে ইমরানকে হত্যার উদ্দেশ্যে ‘কোচি’ নামে আফগানিস্তানের এক আততায়ীকে ভাড়া করা হয়েছে বলেও দাবি করেছিলেন তিনি। সেই দাবিতে কার্যত সিলমোহর দেয় খাইবার পাখতুনখাওয়ার সন্ত্রাস দমন বিভাগ। তারা জানায়, প্রাক্তন পাক অধিনায়কের জীবননাশের জন্য আফগানিস্তানের এক ভাড়াটে খুনির সাহায্য নেওয়া হচ্ছে এই খবর তারাও জানতে পেরেছেন।

তারও আগে এক রাজনৈতিক সমাবেশে ইমরান নিজেই তাঁকে হত্যার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। এবিষয়ে তাঁর কাছে কিছু ভিডিও ফুটেজ আছে বলেও দাবি করেছিলেন। যদিও সেই প্রমাণ প্রকাশ্যে আনেননি প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী। এবার চাঞ্চল্য ছড়াল ইমরানের বিমানের জরুরি অবতরণকে ঘিরে।

[আরও পড়ুন: কলকাতায় ডেঙ্গির বলি আরও এক, রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২, বাড়ছে উদ্বেগ]

Advertisement
Next