Advertisement

‘ত্রাণের এক পয়সাও নেব না’, বিধ্বস্ত গাজা থেকে বার্তা ‘পঙ্গু’হামাসের

12:44 PM May 27, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইজরায়েল বনাম হামাস যুদ্ধে খেসারত দিয়েছে গাজা। কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে শহরটি। পানীয় জল, বিদ্যুৎ ও খাবারের জন্য হাহাকার করছে মানুষ। এহেন পরিস্থিতিতে প্যালেস্তাইনের জঙ্গিগোষ্ঠী হামাস দাবি করেছে আন্তর্জাতিক ত্রাণ তহবিল থেকে একটি পয়সাও নেবে না তারা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: দারুণ সাফল্য ইজরায়েলী সেনার, ৫ দিনে ছিন্নভিন্ন হামাসের সুড়ঙ্গের জাল]

বুধবার এক বিবৃতি জারি করে গাজায় হামাসের রাজনৈতিক শাখার প্রধান ইয়াহিয়া সিনওয়ার জানিয়েছেন, গাজায় পুনর্নির্মাণে আন্তর্জাতিক মঞ্চ ও আরব দেশগুলি থেকে আসা ত্রাণ ও টাকা ‘স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ’ ভাবে বিতরণ করা হবে। তা থেকে একটি পয়সাও নেবে না হামাস। তিনি বলেন, “গাজাকে ফের গড়ে তুলতে বিশ্ব ও আরব দেশগুলির প্রয়াসকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি। আমরা প্রতিজ্ঞা করছি ত্রাণের কোনও টাকা আমরা নেব না।” বলে রাখা ভাল, মঙ্গলবার ইজরায়েল সফরে যান মার্কিন বিদশ সচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। সেখানে গাজায় সংঘাত থামাতে ইজরায়েল ও প্যালেস্তাইনের নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। শুধু তাই নয়, বিধ্বস্ত গাজার নির্মাণে আরও ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেন মার্কিন বিদেশ সচিব। এছাড়া, ব্লিঙ্কেন দাবি করেন, গাজাকে ফের গড়ে তোলার কাজ যেন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের নেতৃত্বে প্যালেস্তিনীয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে হয়। ত্রাণের টাকা থেকে কোনওভাবেই হামাস যেন ফায়দা তুলতে না পারে।

উল্লেখ্য, রামাল্লা শহর থেকে প্যালেস্তাইন শাসন করলেও গাজার নিয়ন্ত্রণ নেই মাহমুদ আব্বাসের হাতে। ওই শহরটি চালায় হামাস। গাজায় লক্ষ লক্ষ কোটি টাকার ত্রাণ পাঠায় বিশ্বের বহু দেশ। কিন্তু সেই টাকা থেকে বেশ মোটা অংশ ইজরায়েলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে ব্যবহার করে হামাস। হাতিয়ার কেনা থেকে শুরু করে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় ত্রাণের টাকা থেকে। এবারের যুদ্ধে কোমর ভেঙে হামাসকে পঙ্গু করে দিয়েছে ইজরায়েলের ফৌজ। জঙ্গিগোষ্ঠীটির অস্ত্রভাণ্ডার থেকে শুরু করে কয়েক দশকের তৈরি পরিকাঠামো গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইহুদি দেশটি। নিহত হয়েছে হামাসের বেশ কয়েকজন শীর্ষ জঙ্গিনেতা। ফলে নিজেকে ফের শক্তিশালী করে তুলতে ত্রাণে আসা অর্থ ছিনিয়ে হাতিয়ার কেনার চেষ্টা করবে হামাস বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

[আরও পড়ুন: আরব-ইহুদি যুদ্ধে নয়া ফ্রন্ট, এবার লেবাননে বোমাবর্ষণ ইজরায়েলের]

Advertisement
Next